২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

মুসল্লিরা বিএনপি জামায়াতের ওপর ক্ষুব্ধ


জনকণ্ঠ রিপোর্ট ॥ পথে পথে বাধা পাওয়ায় ক্ষুব্ধ মনোভাব ব্যক্ত করেছেন বিশ্ব এজতেমায় যোগ দেয়া মুসল্লিরা। সৃষ্টিকর্তার নৈকট্য লাভের আশায় ধর্মপ্রাণ মানুষকে কেন বাধা দেয়া হচ্ছে এমন প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। সুষ্ঠুভাবে এজতেমা পালনের জন্য বিএনপি শেষ পর্যন্ত অবরোধ শিথিল করবে এমন প্রত্যাশা করলেও তা করেনি দলটি। ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের আবেগকে পুঁজি করে রাজনীতি করলেও বিএনপি আসলে ইসলামে বিশ্বাসী কী না সন্দেহ প্রকাশ করেছেন মুসল্লিদের অনেকে। রাজশাহীর রফিকুল ইসলাম বলছেন, এবার এজতেমায় আসতে পারবেন কি না তা নিয়ে বিভ্রান্তিতে ছিলেন তাঁরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত যত বাধাই আসুক এজতেমায় আসার মনস্থির করেন। কিন্তু পথে বহু জায়গায় তাঁদের গাড়ি থামিয়ে কৈফিয়ত দিতে হয়েছে, কেন অবরোধের মধ্যে এজতেমায় যাওয়া হচ্ছে। অনেক জায়গায় হাতে-পায়ে ধরে বোঝাতে হয়েছে। তিনি বলেন, এভাবে ইসলামের শুরুর সময়ে বাধা দেয়া হয়েছে, যেন ইসলাম বিকশিত হতে না পারে। কিন্তু কাফের মুশরিকরা ইসলামের কোন ক্ষতি করতে পারেনি বরং তারাই ধ্বংস হয়ে গেছে। একটি স্বাধীন দেশে একটি রাজনৈতিক দল এভাবে মানুষের ধর্ম পালনে বাধা দিতে পারে না। এদের শাস্তি হওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি।

নড়াইলের আবুল কাশেম বলেন, তিনি প্রতিবছরই এজতেমায় আসেন। এবার বিএনপির অবরোধের মুখেও পথে পথে যত বাধাই আসুক, যত বিপত্তি সৃষ্টি করা হোক না কেন এজতেমায় আসার প্রস্তুতিও নেন। ফরিদপুর-রাজবাড়ী-মানিকগঞ্জের বিভিন্নস্থানে তাঁদের বাসকে বাধা দেয় অবরোধকারীরা। তাঁদের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ও হয়। তিনি বলেন, আমরা তাঁদের একটা প্রশ্নই করেছি, আপনারা কি মুসলমান নন। মুসলমান হলে তাঁরা কোনদিনই এভাবে মুসল্লিদের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেন না বলে মনে করেন ৩৫ নং খিত্তার এই মুসল্লি।

শুক্রবার শত বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে জুমার নামাজ পড়তে এজতেমা মাঠে প্রায় নয় লাখ মুসল্লি জড়ো হন। এজতেমা ময়দানে অনেকেই বিস্ময় প্রকাশ করে বলেছেন, এর নাম কোনদিন রাজনীতি হতে পারে না। রাজনীতি যদি মানুষের জন্যই হয় তাহলে মানুষকে এভাবে জিম্মি করে কেন রাজনীতি করতে হবে। সাধারণ মুসল্লিরা প্রশ্ন তুলেছেন, তাঁরা আসলে কি চান; ক্ষমতা না ধর্ম। দুনিয়ার সাময়িক মোহ ত্যাগ করে অবরোধকারীদের ইসলামের পথে আসার আহ্বান জানিয়েছেন মুমিনরা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: