২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

নিউজিল্যান্ডে হোয়াইটওয়াশ লঙ্কানরা


নিউজিল্যান্ডে হোয়াইটওয়াশ লঙ্কানরা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নবেম্বরে শারজায় পাকিস্তানকে হারানোটা যে ফ্লুক ছিল না ক্রাইস্টচার্চে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জিতে ১-০তে এগিয়ে যাওয়া ছিল তারই প্রমাণ। সেটিকে পূর্ণতা দিল কিউইরা। জয় দিয়ে নতুন বছর শুরুর পাশাপাশি শক্তিধর শ্রীলঙ্কাকে ২-০তে হোয়াইটওয়াশ করল ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল! ওয়েলিংটনে সিরিজ নির্ধারণী দ্বিতীয় টেস্টে ১৯৩ রানে হেরে অসহায় আত্মসমর্পণ করল লঙ্কানরা। দ্বিতীয় ইনিংসে বিজে ওয়াটলিংকে সঙ্গী করে ষষ্ঠ উইকেটে রেকর্ড জুটির রূপকার, অপরাজিত ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ম্যাচের নায়ক তরুণ কিউই ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন। ২০১৪-এর ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত এগারো মাসে ভারত, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন- তিনটি সিরিজ জয়ের পাশাপাশি পাকিস্তানের সঙ্গে ড্রয়ের করে টেস্ট ক্রিকেটে অসাধারণ সব অর্জনে নাম লেখাল ব্ল্যাক-ক্যাপসরা!

ওয়েলিংটন টেস্টে পাঁচদিন ধরেই ছিল সত্যিকার ক্রিকেটের রোমাঞ্চ। দোলাচল, এগিয়ে যাওয়া, ডাবল সেঞ্চুরির জবাবে ডাবল সেঞ্চুরি, রেকর্ড জুটি, আরও কত কী! বুধবার শেষদিনে চতুর্থ ইনিংসে ৩৯০ রান তাড়া করে ম্যাচ জেতা প্রায় অসম্ভব, তাই জয়ের ভাবনাটা হয়ত দূরেই সরিয়ে রেখেছিল লঙ্কানরা। কিন্তু তাই বলে র‌্যাঙ্কিয়ে পিছিয়ে থাকা দলের কাছে এমন অসহায় আত্মসমর্পণ এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস-কুমার সাঙ্গাকারাদের জন্য সত্যি বেমানান! অথচ সাঙ্গাকারার দুর্দান্ত ডাবল সেঞ্চুরির পর তৃতীয় দিন পর্যন্ত ওয়েলিংটনে জয়ের স্বপ্ন দেখছিল অতিথিরা। ক্ষয়িষ্ণু আত্মবিশ্বাসে শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে গেছে ১৯৬ রানে। প্রথম ইনিংসে ১৩৫ রানে পিছিয়ে থাকার পরও ১৯৩ রানের জয় নিউজিল্যান্ডের জন্য বড় কৃতিত্বের। ১৯৯৪ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষবার প্রথম ইনিংসে ১৪৪ রানে পিছিয়ে থেকেও জিতেছিল কিউইরা।

প্রথম ইনিংসে ২২১ রানে অলআউট হওয়া স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে তোলে ৫২৪ রানের বিশাল সংগ্রহ (৫ উইকেটে ডিক্লেয়ার)! ম্যাচের নায়ক কেন উইলিয়ামসন ও বিজে ওয়াটলিংয়ের দ্বিতীয় ইনিংসের রেকর্ড জুটিই মূলত ম্যাককুলামদের জয়ের ক্ষেত্র তৈরি করে দেয়। অবিচ্ছিন্ন ৩৬৫Ñ উইলিয়ামসন অপরাজিত ২৪২ ও ওয়াটলিং ১৪২! নিউজিল্যান্ড তো বটেই এ জুটির সংগ্রহ টেস্ট ইতিহাসেরই ষষ্ঠ উইকেটের নতুন রেকর্ড। ওয়েলিংটনে ব্যাটিংটা মোটেই নিজেদের সুনাম মতো করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। প্রথম ইনিংসে ৩৫৬ এসেছিল ১২ হাজারি ক্লাবে নাম লেখানো সাঙ্গাকারার একক প্রচেষ্টায় (২০৩)। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং ভাল হলে অন্তত ড্রর স্বপ্ন দেখতে পারত ম্যাথুসরা। কিন্তু স্পিনার মার্ক ক্রেইগ (৪/৫৩) ও দুই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট (২/৫৫) ও ডগ ব্রেসওয়েলের (২/২৫) সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে দাঁড়াতেই পারেনি তারা। দুই হাফ সেঞ্চুরিতে কুশল সিলভা (৫০) ও লাহিরু থিরিমান্নেই (৬২*) যা প্রতিরোধ গড়েছেন। সাঙ্গাকারা ফেরেন ৫ রান করে। লঙ্কানদের বিপক্ষে কিউইদের এটি ১২তম টেস্ট জয়- ওয়েস্ট ইন্ডিজের (১৩) পর নিউজিল্যিান্ডের যা দ্বিতীয় সর্বাধিক জয়ের নজির। ক্রাইস্টচার্চে সাত ওয়ানডের প্রথমটি রবিবার।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: