২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ধানমণ্ডিতে নতুন ভারতীয় ভিসা সেন্টারের যাত্রা শুরু


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভারতীয় ভিসার আবেদন নেয়ার জন্য রাজধানীর ধানম-িতে একটি নতুন সেন্টার চালু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সেন্টারটির উদ্বোধন করেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার সন্দ্বীপ চক্রবর্তী।

ভিসা সেন্টার উদ্বোধন উপলক্ষে ধানম-ির সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশে ভারতীয় ভিসার চাহিদা অনেক বেশি। তাই জনগণের দুর্ভোগ কমাতে ভারত সরকার বাংলাদেশে নতুন নতুন ভিসা সেন্টার খোলার পরিকল্পনা নিয়েছে। ধানম-ির এই সেন্টারটি সপ্তম সেন্টার। এই সেন্টারে রবি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কার্যক্রম চলবে।

সন্দ্বীপ চক্রবর্তী বলেন, আমরা বাংলাদেশের জনগণকে প্রতিবছর সর্বোচ্চ সেবা দিয়ে থাকি। তাই মেডিক্যাল ভিসা প্রদানের পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। তিনি বলেন, মেডিক্যাল ভিসার জন্য অনলাইন এ্যাপয়েনমেন্টের প্রয়োজন নেই। শুধু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে ভিসা সেন্টারে এলেই তাদের ভারতে যাওয়ার ভিসা দেয়া হবে।

ভিসা সংগ্রহে দালালদের দৌরাত্ম্য প্রসঙ্গে ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত দালালদের দৌরাত্ম্য কমাতে বিভিন্ন পদ্ধতি অনুসরণ করছি। তবে বিষয়টি বাংলাদেশের একান্তই অভ্যন্তরীণ আর এই দালালরাও বাংলাদেশের নাগরিক। তাই ওদের ব্যাপারে কোন রকমের ব্যবস্থা নিতে হলে তা বাংলাদেশ সরকারকে নিতে হবে। তবে এই দালালদের সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনের কোন সম্পর্ক নেই।

তিনি জানান, রাজশাহী, সিলেট ও চট্টগ্রামে চিকিৎসাসহ নন ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য অনলাইন এ্যাপয়েনমেন্টের প্রয়োজন হয় না। ভবিষ্যতে ঢাকাতেও এই পদ্ধতির অনুসরণ করা হবে। নতুন ভিসা সেন্টার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার কান্ট্র্র্রি চীফ পিনাক চক্রবর্তীসহ হাই কমিশনের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ভারতীয় হাইকমিশন সূত্র জানায়, ইংরেজী বছরের প্রথম দিন বৃহস্পতিবার থেকে ধানম-ির ২ নম্বর সড়কের ২৪ নম্বর বাড়িতে নতুন ‘ইন্ডিয়ান ভিসা এ্যাপ্লিকেশন সেন্টার’ যাত্রা শুরু করল। রবি থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ভিসার আবেদন গ্রহণ করা যাবে আর ভিসা দেয়া হবে বিকেল ৩টা থেকে ৬টা পর্যন্ত। ভারতীয় ভিসার আবেদন ফিও ৪০০ টাকা থেকে বাড়ানো হয়েছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহীর পাঁচটি সেন্টারে আবেদন জমা দিতে খরচ হবে ৬০০ টাকা করে আর সিলেট বা খুলনায় লাগবে ৭০০ টাকা। ভিসা ফির সঙ্গে বছরের প্রথম দিন ১ জানুয়ারি থেকে বদলেছে আবেদনকারীর ছবি দেয়ার নিয়ম। এখন থেকে আবেদনকারীকে ছবি স্ক্যান করে অনলাইন ফরমের নির্ধারিত স্থানে আপলোড করতে হবে। ভিসার বিষয়ে আরও তথ্যের জন্য visahelp@ivacbd.com, info@ivacbd.com, visahelp @hcidhaka.gov.in ঠিকানায় ই-মেইলে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।