১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে বরের ওপর এ্যাসিড নিক্ষেপ ॥ শিশুসহ দগ্ধ ৫


নিজস্ব সংবাদদাতা, শরীয়তপুর, ১ জানুয়ারি ॥ বুধবার রাতে শরীয়তপুরের সখিপুরে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে দুর্বৃত্তদের এ্যাসিড নিক্ষেপে বর ও শিশুসহ ৫ জন দগ্ধ হয়েছে। আহতদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ্যাসিড সন্ত্রাসের ফলে বর-কনের বাড়িতে বিয়ের আনন্দের পরিবর্তে এখন চলছে কান্না আর বিলাপ। এ ঘটনায় সখিপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নেছার উদ্দিন জুয়েল, শরীয়তপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (গোসাইরহাট সার্কেল) ও সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমির সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সখিপুর থানা ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়নের কালামিয়া সরকারকান্দি গ্রামের ইদ্রিস সরকারের পুত্র সেলিম সরকারের সঙ্গে আনু সরকারকান্দি গ্রামের ফারুক রাঢ়ীর মেয়ে তানজিলা আক্তার শিরোমনির সঙ্গে (আজ) বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। বিয়ের আগের দিন বুধবার রাতে বরের বাড়িতে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান চলছিল। হঠাৎ আনুমানিক রাত সাড়ে ১২টার সময় জেনারেটরের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়ে অজ্ঞাত কয়েক দুর্বৃত্ত বর সেলিমকে লক্ষ্য করে এ্যাসিড নিক্ষেপ করে দ্রুত পালিয়ে যায়। এতে বর সেলিম সরকার (২৬), তার ভাগিনী রাবেয়া (৬), ভাগিনা সিয়াম (৫) ও প্রতিবেশী জহুরা বেগম (২২), শাহীনা বেগম (২৫) মারাত্মকভাবে এ্যাসিড দগ্ধ হয়। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক তাদের উদ্ধার করে প্রথমে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রোগীদের অবস্থা আশঙ্কাজন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে প্রেরণ করে। আহতদের মধ্যে বর সেলিম সরকার, রাবেয়া ও সিয়ামের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বর সেলিম সরকারের ভাই ইউনুস সরকারের অভিযোগ, সখিপুরের চরভাগা এলাকার জাহাঙ্গীর মাস্টারের ছেলে সিফাত এক মাস পূর্বে শিরোমনিকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু শিরোমনি ও তার অভিভাবক তা মেনে না নেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় সখিপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমির সরকার বলেন, এ্যাসিড নিক্ষেপের সংবাদ পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। এ্যাসিড দগ্ধদের চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: