২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জামায়াতের দ্বিতীয় দিনের হরতালেও সাড়া মিলল না


স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুদ্ধাপরাধী এটিএম আজহারুল ইসলামের মৃত্যুদ-ের রায়ের প্রতিবাদে জামায়াত-শিবিরের ডাকা দুইদিনের হরতাল শেষ হয়েছে। আগের দিনের মতো শেষ দিন বৃহস্পতিবারও হরতালে জীবনযাত্রা ছিল স্বাভাবিক। জামায়াতীদের জনতা প্রত্যাখ্যান করায় সারাদেশেই দেখা গেছে নামকাওয়াস্তে হরতালের চেহারা। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নজরদারির মধ্যেও রাজধানীসহ কয়েকটি স্থানে নাশকতা চালানোর চেষ্টা করে জামায়াতীরা। রাজধানীর গাবতলীতে বাসে পেট্রোল বোমা ছোড়া হয়েছে। রাজশাহীতে পুলিশকে লক্ষ্য করে হাতবোমা হামলা চালিয়েছে শিবির ক্যাডারা।

এদিকে আগের দিনের মতো দেশবাসী হরতাল প্রত্যাখ্যান করলেও জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমীর মকবুল আহমদ যথারীতি দাবি করেছেন, তাদের হরতাল সফল হয়েছে। জনগণ ব্যাপক সাড়া দিয়েছে। দেশবাসীকে এজন্য ধন্যবাদও জানিয়েছেন জামায়াত নেতা। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের হরতাল চলেছে। রাজধানীতেও ছিল হরতাল। তবে সড়কে সকালেই যানবাহনের চিত্র দেখে বোঝার উপায় ছিল না, হরতালের মধ্য দিয়ে দিন পার করছেন রাজধানীবাসী। সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন রুটে পর্যাপ্ত সংখ্যক যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল করে। ফলে বিভিন্ন পয়েন্টে দেখা দেয় যানজট। সকাল ১০টার পর খুলতে শুরু করে দোকানপাট। সকালেই গাবতলী, ফার্মগেট, শাহবাগ, রামপুরা, মালিবাগ, মৌচাক, খিলগাঁও, শান্তিনগর, পুরানা পল্টন মোড়, মতিঝিল শাপলা চত্বর, সায়েদাবাদ জনপথ, যাত্রাবাড়ী মোড়, বাড্ডা, মহাখালী মোড়সহ বিভিন্ন স্থানে যানজট দেখা যায়। সড়কগুলোতে ব্যক্তিগত পরিবহনের সংখ্যা বেশি দেখা না গেলেও স্বাভাবিক দিনের মতোই যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল করতে দেখা যায়। সকাল থেকেই পরিবহনগুলোতে যাত্রী সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মতো। হরতালের সমর্থনে সকালে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় জামায়াত-শিবির মিছিল করেছে। সকাল ৭টার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডি-১১ নম্বরে মিছিল বের করে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা। ১০টার দিকে রাজধানীর গাবতলীতে বাসে পেট্রোল বোমা ছোড়া হয়েছে। দারুস সালাম থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, সকাল ১০টার পর টার্মিনালের সামনে রাস্তার একপাশে দাঁড় করিয়ে রাখা একটি আট নম্বর খালি বাসে পেট্রোল বোমা ছোড়া হয়। গাড়ির কাচ ভেঙে সেটি ভেতরে ঢুকে গেলেও আগুন বেশি ছড়াতে পারেনি বলে জানান ওসি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কয়েকজন শিবিরকর্মী ঝটিকা মিছিল নিয়ে এসে এ হামলা চালায়। ওসি বলেন, পেট্রোল বোমা ছোড়ার পর হরতালকারীরা পাঁচ ছয়টি হাতবোমাও ফাটায়। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হননি। পরে রাস্তার উল্টো দিকে পরিত্যক্ত অবস্থায় আরও তিনটি পেট্রোল বোমা উদ্ধার করা হয় বলে জানান ওসি। ঢাকার বাইরে রাজশাহীর সোনাদীঘি এলাকায় পুলিশ-ছাত্রশিবির সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় শিবির কর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে তিনটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ পাল্টা সাউন্ড গ্রেনেড ও শর্টগানের গুলি ছোড়ে শিবির কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। বৃহস্পতিবার বেলা ১০টার দিকে নগরীর সোনাদীঘি এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বোয়ালিয়া থানার ওসি খন্দকার নুর হোসেন বলেন, যুদ্ধাপরাধী আজহারুল ইসলামের ফাঁসির রায়ের প্রতিবাদে জামায়াতের ডাকা হরতালের দ্বিতীয় দিনে রাজশাহীর সোনাদীঘি মনি চত্বরে ছাত্রশিবির কর্মীরা রাস্তায় পেট্রোল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে। এ সময় সেখানে পুলিশ পৌঁছলে শিবির কর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পর পর তিনটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটনায় এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এ সময় সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে রাজারহাতা এলাকা পর্যন্ত। পুলিশ দুইটি সাউন্ড গ্রেনেডের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ২৬ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছোড়ে শিবির কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) ইফতাখায়ের আলম বলেন, সোনাদীঘি এলাকায় বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া হরতালে নগর জীবন স্বাভাবিক রয়েছে। দূরপাল্লার যানবাহন ছেড়ে না গেলেও সকাল থেকে নগরীতে হালকা যানবাহন ছিল স্বাভাবিক। দোকানপাট ও অফিস আদালতে খোলে সময়মত। আর রাজশাহী রেল স্টেশন থেকে সময়মত সব ট্রেন ছেড়ে যায় বলে জানান স্টেশন সুপার আবদুল করিম। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ইসলামী ছাত্র শিবিরের এক নেতার দোকান থেকে অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বেলা ১টার দিকে উপজেলার বালাসবাড়ি এলাকায় উল্লাপাড়া পৌর ইসলামী ছাত্র শিবিরের সভাপতি ইমরান হোসেনের দোকান থেকে অস্ত্রগুলো উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে- একটি বিদেশী পিস্তল, দেশে তৈরি একটি পাইপগান, ১০টি পটকা, বড় আকারের দুটি হাঁসুয়া ও ৩৩টি ধারালো ছুরি। থানার উপ-পরিদর্শক আব্দুল জলিল জানান, বালসাবাড়ি এলাকায় পৌর ছাত্রশিবিরের সভাপতি ইমরান হোসেনের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে অবৈধ অস্ত্র আছে খবর পেয়ে বেলা ১টার দিকে সেখানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় শিবির নেতা ইমরান। পরে ওই দোকানে তল্লাশি চালিয়ে অস্ত্রগুলো উদ্ধার করা হয়। তিনি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে নাশকতার পরিকল্পনায় এসব অস্ত্র জমা করা হয়েছিল। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে বলে জানান এসআই আব্দুল জলিল।

সিলেটে ঝটিকা মিছিল নিয়ে গাড়ি ভাংচুর করেছে ইসলামী ছাত্রশিবির। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে নগরীর মেডিকেল রোড এলাকায় ঝটিকা মিছিল বের করে শিবিরকর্মীরা। মিছিলের এক পর্যায়ে হরতালকারীরা একটি আটোরিকশা ভাংচুর করে। তবে পুলিশ আসার আগেই তারা পালিয়ে যায়।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: