১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

বিধ্বস্ত এয়ারএশিয়া, দৃষ্টি এখন ব্ল্যাকবক্সের দিকে


সমুদ্র উত্তাল থাকার কারণে বৃহস্পতিবার বোর্নিও দ্বীপের উপকূলে বিধ্বস্ত হওয়া এয়ার এশিয়ার বিমানের অনুসন্ধান অভিযান সাময়িক বন্ধ রয়েছে। বিমানটি ঠিক কি কারণে জাভা সমুদ্রে বিধ্বস্ত হয়েছে তা জানার জন্য ব্ল্যাকবক্স উদ্ধার হওয়া প্রয়োজন। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার জন্য সেটা সম্ভব হচ্ছে না। খবর বিবিসি অনলাইনের।

অনুসন্ধানকারীরা জানিয়েছেন, সমুদ্রের তলদেশে ৩০ থেকে ৫০ মিটারের মধ্যে কিছু একটা জিনিসের খোঁজ পাওয়া গেছে। আবহাওয়া ভাল হলে সেখানে তল্লাশি চালানো হবে। তাদের ধারণা, এটা বিধ্বস্ত এয়ার এশিয়ার এয়ারবাসটির মাঝের মূল কাঠামো। ১৬২ জন আরোহী নিয়ে রবিবার ভোরে বিমানটি সুরাবায়া থেকে সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে ঝড়ের কবলে পড়ে। জাকার্তা এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে এর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ব্যাপক অনুসন্ধানের পর এটি জাভা সাগরে বিধ্বস্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত। এরই মধ্যে কিছু লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এয়ার এশিয়ার কর্মকর্তা টনি ফার্নান্দেজ এক টুইটারবার্তায় বলেন, ‘আমি আশা করছি, সর্বসাম্প্রতিক তথ্য সঠিক এবং বিমানটি পাওয়া যাবে। আসুন সবাই একসঙ্গে আশায় বুক বাঁধি। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’ ব্ল্যাকবক্স ও ভয়েস রেকর্ডার খুঁজে পেতে সপ্তাখানেক সময় লাগতে পারে। তিনি বিমানের অবস্থান সম্পর্কে এখনো সন্দেহমুক্ত নন বলে জানিয়েছেন। সানিটিয়োসো সাংবাদিকদের বলেন, “ধ্বংসাবশেষ কোথায় পাওয়া যাবে সেটি খুঁজে বের করা হচ্ছে সবচে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর তারপর ব্ল্যাকবক্সের খোঁজ।” কেউই এখনও পর্যন্ত এর সংকেত শনাক্ত করার কথা বলতে পারেনি। এখন প্রথমে যে বড় জিনিসটির অবস্থান সম্পর্কে ধারণা করা হচ্ছে সেটি কি তা আগে নিশ্চিত হয়ে ব্ল্যাকবক্স উদ্ধার অভিযানে নামা হবে বলে তিনি জানান।