১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বডি ওর্ন ক্যামেরা নিয়ে মাঠে পুলিশ


বডি ওর্ন ক্যামেরা নিয়ে মাঠে পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জামায়াতের ডাকা হরতাল ও ইংরেজী নববর্ষ বরণ উপলক্ষে কঠোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বডি ওর্ন ক্যামেরা নিয়ে মাঠে নেমেছে পুলিশ। ক্যামেরাটি পুলিশ সদস্যদের মাথায় বা শরীরে বসানো থাকবে। পুরো আট ঘণ্টা সেই ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও রেকর্ড করা সম্ভব হবে। ক্যামেরাযুক্ত পুলিশ সদস্যরা যেখানে যাবেন, সেখানকার পথচারী ও গাড়ির চলাচলসহ রাস্তার বিভিন্ন চিত্র ধারণ করা সম্ভব হবে। যা কেন্দ্রীয় মনিটরিং সেল থেকে দেখা যাবে। এতে করে নিরাপত্তা আরও সুনিশ্চিত করা সহজ হবে বলে দাবি করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর শাহবাগে ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার হিসেবে শেষ কার্যদিবসে বেনজীর আহমেদ ১৫টি ক্যামেরা পুলিশ সদস্যদের শরীরে লাগিয়ে এমন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। আজ বেনজীর আহমেদ র‌্যাব মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পাচ্ছেন। উদ্বোধন শেষে বেনজীর আহমেদ বলেন, এসব ক্যামেরা বিশ্বের উন্নত দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ব্যবহার করেন। এতে করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা এবং বিভিন্ন এলাকার প্রকৃত চিত্র পাওয়া সহজ ও দ্রুত হয়। এর ফলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিশেষ সুবিধা হয়।

সার্জেন্টদের শরীরে যুক্ত করা হয়েছে বডিওর্ন ক্যামেরাগুলো। এই ক্যামেরা টানা আট ঘন্টা ভিডিও রেকর্ড করা সম্ভব। ক্যামেরাযুক্ত সার্জেন্টরা সেখানে যাবেন, সেখানকার রাস্তাঘাট, যানবাহনসহ অন্যান্য চিত্র পাওয়া যাবে। যুক্তরাজ্য পুলিশ বিশেষ এই ক্যামেরা ব্যবহার করে বিশেষভাবে সফল। পর্যায়ক্রমে অন্তত এক হাজার ক্যামেরা ঢাকা মেট্রোপলিটনে দেয়া হবে। ক্যামেরায় রাস্তার সব ধরনের চিত্রের পাশাপাশি সার্জেন্টের কথোপকথনও স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেকর্ড হয়ে যাবে। যা স্বেচ্ছায় মুছে ফেলতে পারবেন না ক্যামেরাযুক্ত পুলিশ সদস্যরা। অনুষ্ঠানে ডিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (অর্থ ও বাজেট) ইমাম হোসেন জানান, সব ধরনের ক্যামেরার কার্যক্রম কেন্দ্রীয়ভাবে তদারকি করা হবে।

প্রসঙ্গত, ইংরেজী নববর্ষ ও আজকের হরতাল উপলক্ষে সারাদেশে থাকছে বিশেষ নিরাপত্তা। ঢাকায় পর্যাপ্ত সিসিটিভি, সাদা পোশাকে ডিবি পুলিশ, স্ট্রাইকিং রিজার্ভ, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, সোয়াট টিম, এপিসি (আর্মার পার্সোন্যাল কেরিয়ার), জলকামান, মোবাইল ওয়াচ টাওয়ার, মোবাইল কমান্ড সেন্টার, স্টীল ও ভিডিও ক্যামেরা, সিসিটিভি, ভেহিকল স্ক্যানার, মেটাল ডিটেক্টর নিয়ে মাঠে থাকছে পুলিশ ও র‌্যাব। পাশাপাশি থাকছে মোবাইল পেট্রোল, ফুট পেট্রোল, মোটরসাইকেল পেট্রোল, চেকপোস্টসহ নানা ধরনের নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা। থাকছে ভ্রাম্যমান আদালত।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: