১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ঢাবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে নীল দলের নিরঙ্কুশ বিজয়


বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ১৫টি পদের সবক’টিতেই আওয়ামী লীগ ও বাম সমর্থিত নীল দলের শিক্ষকরা জয়ী হয়েছেন। বিএনপি ও জামায়াত সমর্থিত সাদা দলের শিক্ষকরা একটি আসনেও নির্বাচিত হতে পারেননি। বুধবার বিকেলে ভোট গণনা শেষে নির্বাচন কমিশনার ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক শফিক উজজামান এই ফলাফল ঘোষণা করেন। এর আগে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ক্লাব প্রাঙ্গণে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়।

এ বছর সমিতির সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন, শিক্ষক সমিতির গত কমিটির সভাপতি সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন গত কমিটির সধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল। সহ-সভাপতি পদে ম্যানেজমেন্ট ও ইনফরমেশন বিভাগের অধ্যাপক মোঃ হাসিবুর রশীদ, কোষাধ্যক্ষ পদে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন সিনেট ও ফাইন্যান্স কমিটির সদস্য অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে সিনেট সদস্য অধ্যাপক মোঃ আফতাব আলী শেখ নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া সমিতির ১০টি সদস্যপদে কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোঃ আখতারুজ্জামান, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ জে এম শফিউল আলম ভূঁইয়া, অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাবিতা রিজওয়ানা রহমান, খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক মোঃ নিজামুল হক ভূইয়া, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সৌমিত্র শেখর, ইংরেজী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তাজিন আজিজ চৌধুরী, ফলিত গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোঃ আবদুস ছামাদ, ক্রিমিনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউর রাহমান, মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক মুবিনা খন্দকার ও আইন বিভাগের অধ্যাপক মোঃ রহমত উল্লাহ নির্বাচিত হয়েছেন।

ফলাফল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশনার জানান, নির্বাচন শতভাগ সুষ্ঠু, স্বাভাবিক এবং স্বচ্ছ হয়েছে। এক হাজার ৯০২ জন ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন এক হাজার ৩৬৫ জন। ছুটিতে থাকা শিক্ষক ও জামায়াতের ডাকা হরতাল নির্বাচনে বিন্দুমাত্র প্রভাব ফেলেনি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

১৫টি পদের সবক’টিতে নির্বাচিত হওয়ার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে সমিতির নবনির্বাচিত সদস্য ও নীল দলের অন্যতম শিক্ষক নেতা অধ্যাপক এ জে এম শফিউল আলম ভূঁইয়া বলেন, এই ফলাফল কাক্সিক্ষত। বিজয়ের মাসে এই বিজয় আমাদের আনন্দকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। অতীতের মতো এবারও আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নতি-অগ্রগতির জন্য কাজ করব।

নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে সাদা দলের সভাপতি পদপ্রার্থী মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক মোঃ আখতার হোসেন খান জনকণ্ঠকে বলেন, সম্মানিত শিক্ষকদের এই রায়কে আমরা স্বাগত জানাই। আমরা চাই নবনির্বাচিত কমিটি শিক্ষকদের মঙ্গলের জন্য কাজ করুক। আমাদের তারা সবসময়ই পাশে পাবে।

নির্বাচনে সাদা দলের প্রার্থীগণ ছিলেনÑ সভাপতি পদে মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক মোঃ আখতার হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক ইন্টারন্যাশনাল হলের প্রাধ্যক্ষ ও সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক মোঃ লুৎফর রহমান, সহ-সভাপতি পদে সিনেট সদস্য ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে পালি এ্যান্ড বুদ্ধিস্ট স্টাডিস বিভাগের অধ্যাপক দিলীপ কুমার বড়ুয়া, কোষাধ্যক্ষ পদে মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক এ বি এম শহিদুল ইসলাম। এছাড়া সদস্য প্রার্থী ছিলেনÑ রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক আবদুস সালাম, দর্শন বিভাগের অধ্যাপক আহমেদ জামাল আনোয়ার, ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের অধ্যাপক এ এম সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরী, আইন বিভাগের অধ্যাপক এস এম হাসান তালুকদার, সমাজ কল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক গোলাম রব্বানী, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, মৎস্য বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ মামুন চৌধুরী, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মোঃ আব্দুল করিম, শিল্পকলার ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাবরিনা শাহনাজ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক হোসনে আরা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: