১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মুন্সীগঞ্জে শত বছরের মালপাড়া পুকুর ভরাটের চেষ্টা


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ শহরের শত বছরের প্রাচীন মালপাড়া পুকুর ভরাটের অপচেষ্টা চলছে। পরিবেশ অদিপ্তর বলেছে, বিশাল এই পুকুরটি ভরাট হয়ে গেলে জীব বৈচিত্র্যের ক্ষতিসহ অন্তত ২শ’ প্রজারিত জলজ প্রাণী ধংস হবে। এছাড়া এলাকার জলবদ্ধতাসহ আশপাশের এলাকার অগ্নি নির্বাপনেও জরুরি পানির অভাব পূরণ করা কঠিন হবে।

জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নুর আলম জানান, তাই ভরাট প্রক্রিয়া বন্ধে এবং পুকুরের মাঝখানে ভরাটের জন্য দেয়া বাঁধ সরিয়ে নেয়ার জন্য নোটিশ দেয়া হয়েছে। কিন্তু এখনও তা সরিয়ে না নিয়ে বরং রাতের আধারে বালু ফেলে পুকুরটি ভরাটের অপচেষ্টা চালাচ্ছে একটি মহল। পুকুরটিতে ব্যক্তি মালিকানা ছাড়াও ‘ক’ তফসিলের অর্পিত সম্পত্তি রয়েছে। তাই উপজেলা ভূমি অফিস পুকুরটির শ্রেণি পরিবর্তন তথা ভরাট কর্ম বন্ধ রাখার জন্য নোটিশ করেছে।

এ্যাাপারে সদর থানার ওসি আবুল খায়ের ফকির জানান, পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে গোপনে পুকুরটি ভরাটের চেষ্টা চালাচ্ছে মহলটি। গেলেই তারা পালিয়ে যায়। মালপাড়া বাসিন্দা ব্যবসায়ী ফিরোজ আহম্মেদ জানান, মালপাড়া পুকুরটি হচ্ছে এই এলাকার আর্শিবাদ। সম্প্রতি বাজার রোডের হক ক্রোকারিজে আগুন লাগার পর এই পুকুরের পানি দিয়েই দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণ হয়। পাশের আক্তার হোসেনের বাড়ির আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয় এই পুকুরের পানি দিয়েই। আশপাশে আর কোন পুকুর না থাকায় বিগত সময়ের কয়েকটি অগ্নিকান্ড দ্রুত ফায়ার সার্ভিস নির্বাপন করতে পেরেছে এই পুকুরের কারণে। তিনি জানান, এই পুকুর ভরাট হলে পরিবেশ বিপর্যয় ছাড়াও বর্ষায় এলাকায় জলবদ্ধতায় সৃষ্টি হবে।

জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল জানান, ঐতিহ্যবাহী পুকুরটি রক্ষায় ইতোমধ্যেই পরিবেশ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যারা পরিবেশ অদিদপ্তরের নির্দেশ উপেক্ষা করে পুকুরটি ভরাটের চেষ্টা চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।