২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাচসাস পুরস্কার পেলেন রাজ্জাক-কবরী


বাচসাস পুরস্কার পেলেন রাজ্জাক-কবরী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস) পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএফডিসি) কড়ইতলার উন্মুক্ত মঞ্চে শনিবার জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে এ পুরস্কার দেয়া হয়। ২০০৯ থেকে ২০১৩ সালের চলচ্চিত্রের বিভিন্ন শাখায় ১৭টি ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

সংগঠনটির সভাপতি আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল করিম নিশান ও জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান চিন্ময় মুৎসুদ্দি। উপস্থিত ছিলেন নায়করাজ রাজ্জাক, কবরী, শাকিব খান, আমিন খান, মৌসুমী, অপু বিশ্বাস, সিমলা, সম্রাট, ফজলুর রহমান বাবু, চঞ্চল চৌধুরী প্রমুখ। পুরস্কার প্রদানের ফাঁকে ফাঁকে চলে নাচ-গানসহ বিভিন্ন পরিবেশনা। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের কালজয়ী জুটি রাজ্জাক-কবরীর হাতে আজীবন সম্মাননা তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। সেই সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিচালক শহীদুল ইসলাম খোকন ও চাষী নজরুল ইসলামকে দেয়া হয় বিশেষ সম্মাননা পুরস্কার। ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ৫ বছরের পুরস্কার প্রদান করা হয়। এতে ২০০৯ সালে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয় প্রিয়তমেষু, শ্রেষ্ঠ পরিচালক মোরশেদুল ইসলাম (প্রিয়তমেষু), শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার হুমায়ূন আহমেদ (প্রিয়তমেষু), যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা ফেরদৌস (গঙ্গাযাত্রা) ও চঞ্চল চৌধুরী (মনপুরা) এবং শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী পপি (গঙ্গাযাত্রা)।

২০১০ সালের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র গহীনে শব্দ, শ্রেষ্ঠ পরিচালক খালিদ মাহমুদ মিঠু (গহীনে শব্দ), শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার ফরিদুর রেজা সাগর ও খালিদ মাহমুদ মিঠু (গহীনে শব্দ), শ্রেষ্ঠ অভিনেতা শাকিব খান (ভালবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না) ও শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী মৌসুমী (গোলাপী এখন বিলাতে)। ২০১১ সালের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র গেরিলা, শ্রেষ্ঠ পরিচালক নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু (গেরিলা), শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার সৈয়দ শামসুল হক (গেরিলা), শ্রেষ্ঠ অভিনেতা আমিন খান (গরিবের মন অনেক বড়) ও শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী জয়া আহসান (গেরিলা)।

২০১২ সালের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র রানওয়ে, শ্রেষ্ঠ পরিচালক প্রয়াত তারেক মাসুদ (রানওয়ে), শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার রেদওয়ান রনি (চোরাবালি), শ্রেষ্ঠ অভিনেতা মাসুদ আখন্দ (পিতা) ও শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী ববিতা (খোদার পরে মা)।

২০১৩ সালের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র মৃত্তিকা মায়া, শ্রেষ্ঠ পরিচালক গাজী রাকায়েত (মৃত্তিকা মায়া), শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার গাজী রাকায়েত (মৃত্তিকা মায়া), শ্রেষ্ঠ অভিনেতা তিতাস জিয়া (মৃত্তিকা মায়া) এবং যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস (মাই নেম ইজ খান) ও মাহিয়া মাহি (ভালবাসা আজকাল)।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: