২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ব্যাটিং ভরাডুবিতে ফলোঅনে লঙ্কানরা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ স্বাগতিকদের বোলিং তোপে ক্রাইস্টচার্চে ব্যাটিং ভরাডুবি হয়েছে অতিথি লঙ্কানদের। নিউজিল্যান্ডের ৪৪১ রানের জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৩৮ রানে গুটিয়ে গিয়ে ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয়বার ব্যাট করছে এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসের দল! দ্বিতীয় ইনিংসে অবশ্য কোন উইকেট না হরিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে ৮৪ রান করেছে তারা। ‘বক্সিং ডে’তে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম লড়াইয়ে ইনিংস হার এড়াতে আরও ২১৯ রান চাই শ্রীলঙ্কার। দারুণ দিনে ১৩তম কিউই বোলার হিসেবে টেস্টে শততম উইকেট তুলে নিয়েছেন পেস তারকা ট্রেন্ট বোল্ট। এ পর্যন্ত ১৮ বার ফলোঅনে পড়ে পনেরো হারের বিপরীতে তিনবার মাত্র ড্র করার নজির আছে লঙ্কানদের, সুতরাং ক্রাইস্টচার্চে ম্যাচ বাঁচাতে অবিশ্বাস্য কিছুই করতে হবে সফরকারীদের। ৪৯ রান নিয়ে ব্যাট করছেন দিমুথ করুণারতেœ, ব্যক্তিগত ৩৩ রানে সঙ্গে আছেন অপর ওপেনার কুলশল সিলভা।

প্রথম দিন ব্যাট হাতে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম যে তা-ব চালিয়েছেন, তাতে মনে হচ্ছিল রান-বন্যার টেস্টই হতে যাচ্ছে এটি। অথচ সেখানেই দ্বিতীয় দিনে খেই হারাল সফরকারী ব্যাটসম্যানরা। কিউ পেসারদের তোপের মুখে চোখে সর্ষে ফুল দেখল উপমদেশীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা শক্তি লঙ্কানরা! দু’দল মিলিয়ে শনিবার সারাদিনে উইকেট পড়েছে ১৩টি, তাতে বড় ক্ষতিটা হয়েছে শ্রীলঙ্কারই। কিউই পেস আক্রমণে মাত্র ১৩৮ রানে গুটিয়ে গিয়ে ফলোঅনে পড়েছে ম্যাথুসের দল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এটি তাদের তৃতীয় সর্বনিম্ন রানের স্কোর! আগের দুটি ছিল ৯৩ ও ৯৭ রানের ১৯৮৩-৮৪ সালে। কিউদের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং বিপর্যয়ের পুরনো সেই ইতিহাসটাই যেন ফিরে এলো। ১৯৮৩ সালে ওয়েলিংটনে সর্বনিম্ন ৯৩ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল সফরকারীরা। আর পরের বছর ঘরের মাঠ ক্যান্ডিতে তারা অলআউট হয়েছিল ৯৭ রানে। কিন্তু সে দুটি ছিল দ্বিতীয় ইনিংসে। এবার প্রথম ইনিংসে চরম ভরাডুবি হলো শ্রীলঙ্কার।

ভাগ্যিস পাঁচ নম্বরে নেমে ম্যাথুস হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন, নইলে লজ্জাটা আরও বড়ই হতে পারত। ফর্মের তুঙ্গে থাকা সেনাপতি ৮৫ বলে ঠিক ৫০ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন ৩ চার ও ২ ছক্কার সাহায্যে। এ নিয়ে চলতি বছর ১৯ ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি ও সাতটি হাফ সেঞ্চুরি হাঁকালেন ম্যাথুস, গড় ৭৮! বাকিরা মেতেছেন উইকেট যাওয়া-আসার খেলায়। ক্রাইস্টচার্চের নয়নাভিরাম হেডিংলি ওভাল মাঠে শীতের ঝড়া পাতার মতো একের পর এক ঝড়ে পড়েছে অতিথিদের উইকেট! শুরুতে দলীয় ১৫ রানেই নেই তিন ব্যাটসম্যান। লাহিরু থিরিমান্নে ও ম্যাথুসের চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৪৩ রান তুলে যা একটু প্রতিরোধ। এরপর ৩ উইকেটে ৫৮ থেকে আবার চোখের পলকে ৬ উইকেটে ৮৮! ৩ উইকেট খুইয়ে সংগ্রহ মাত্র ৩০! টেলএন্ডে শেষ চার ব্যাটসম্যান ৫০ রান না তুললে কী যে পরিস্থিতি হতো? থিরিমান্নে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪, ধাম্মিকা প্রসাদ ১৮ রান করে আউট হন। আগের দিনের ৭ উইকেটে ৪২৯ রানে ব্যাট করতে নেমে আজ অবশিষ্ট ৩ উইকেটে মাত্র ১২ রান যোগ করে ৪৪১ রানে অলআউট নিউজিল্যান্ড। দু’দিনে ক্রাইস্টচার্চের আকর্ষণীয় ঘটনার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ৩০৩Ñ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় সর্বোচ্চ লিডের নজির। আগের দুবারই জিতেছিল কিউইরা।

স্কোর ॥ নিউজিল্যান্ড ৪৪১/১০ (৮৫.৫ ওভার; ম্যাককুলাম ১৯৫, নিশাম ৮৫, উইলিয়ামসন ৫৪, লাথাম ২৭, ওয়াটলিং ২৬, রাদারফোর্ড ১৮; ম্যাথুস ৩/৩৯, লাকমল ৩/৯০), শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস ১৩৮/১০ (৪২.৪ ওভার; ম্যাথুস ৫০, থিরিমান্নে ২৪, প্রসাদ ১৮, সাঙ্গাকারা ৬; বোল্ট ৩/২৫, ওয়াগনার ৩/৬০, সাউদি ২/১৭, নিশাম ২/২৮) ও দ্বিতীয় ইনিংস ৮৪/০ (৩৫ ওভার; করুণারতেœ ৪৯*, সিলভা ৩৩*)।

** দ্বিতীয় দিন শেষে

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: