২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কুমিল্লায় বক্স খাটে লুকানো গৃহবধূর লাশ উদ্ধার


নিজস্ব সংবাদদাতা, কুমিল্লা, ২৭ ডিসেম্বর ॥ ফ্ল্যাটের বক্স খাটে লুকানো তাকওয়া আক্তার নামে গৃহবধূর লাশ দুইদিন পর শনিবার রাতে উদ্ধার করা হয়েছে। মহানগরীর কালিয়াজুড়ি এলাকার সর্দার বাড়ির তিনতলা ভবনের ৩য় তলার ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে। নিহত গৃহবধূ ওই ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া ও মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার পশ্চিম লইয়ারপুর গ্রামের দুলাল মিয়ার স্ত্রী এবং কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সাদকপুর গ্রামের আবদুর রবের মেয়ে। খাদিজা (৫) ও তানভীর (৩) নামে তাদের দুইটি শিশু সন্তান রয়েছে।

নিহতের স্বামী দুলাল মিয়া জানান, তিনি চট্টগ্রামের একটি বেসরকারী কোম্পানির গাড়ির চালক এবং তাঁর স্ত্রী তাকওয়া আক্তার (২৫) কুমিল্লা ইপিজেডে কাদেনা স্পোর্টস ওয়্যার কোম্পানিতে চাকরী করতেন। গত ৬/৭ মাস ধরে তাঁর স্ত্রী ও ২ সন্তান, ভায়রা আতিকুর রহমান পিন্টুর পরিবারসহ মহানগরীর কালিয়াজুড়ি এলাকার মনিরুল হক সর্দারের মালিকানাধীন ভবনের তিন তলার একটি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন। গত বুধবার বিকেলে তাঁর মেয়ে খাদিজাকে নিয়ে ভায়রা আতিকুর রহমান পিন্টুর পরিবার বুড়িচংয়ের সাদকপুর গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। এ সময় তাকওয়া তাঁর শিশু সন্তান তানভীরকে নিয়ে ফ্ল্যাটে অবস্থান করছিলেন। ওই সময় থেকে শনিবার বিকেল পর্যন্ত যে কোন সময় তাকওয়াকে হত্যা করে লাশ ফ্ল্যাটের সামনের রুমের বক্স খাটের নিচে লুকিয়ে রাখে ঘাতক।

পরিবারের সদস্যরা তাঁকে খুঁজে না পেয়ে শনিবার বিকেলের দিকে বাসায় দুর্গন্ধ পেয়ে বক্স খাটের নিচে লুকানো তাঁর লাশের সন্ধান পায়। কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই মফিজ উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। বাসায় একা পেয়ে তাঁকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল বলে জানা গেছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: