২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ইউক্রেনের ন্যাটোতে যোগদান ইউরোপের জন্যও বিপজ্জনক


রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ বলেছেন, ন্যাটোর সদস্যপদ অর্জনের জন্য ইউক্রেনের উদ্যোগ কেবল ইউক্রেনীয় জনগণের জন্যই বিপজ্জনক নয়, বিপজ্জনক ইউরোপীয় নিরাপত্তার জন্যও। তিনি বলেন, ইউক্রেনীয় জনগণের জন্য তা বিপজ্জনক। কারণ, সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ঐক্য নেই তাদের মধ্যে। তিনি আরও বলেন, রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে সংঘাত উস্কে দেয়ার পথ হিসেবে কিয়েভের আটলান্টিক জোটে যোগ দেয়ার এ চেষ্টাকে ব্যবহার করছে পাশ্চাত্য। খবর তাস অনলাইনের।

লাভরভ বৃহস্পতিবার রোসিয়া ওয়ান টিভি চ্যানেলে বলেন, আমার কাছে বিস্ময় ঠেকে, কেন বিশ্লেষকরা এমন কথা বললেন যে, হ্যাঁ তারা জোটনিরপেক্ষ মর্যাদা ত্যাগ করে পার্লামেন্টে আইন পাস করেছেন, তাঁরা ন্যাটোতে যোগ দেবেন। কিন্তু এতে তাঁদের সময় নেবে কমপক্ষে ৬ বছর। তাঁদের এ জন্য আবেদন করতে হবে। আবেদনের জন্য তাঁদের প্রস্তুত করতে হবে রাষ্ট্রটিকে এবং রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থা, আইন প্রয়োগ ব্যবস্থা ও সামরিক সংস্থাগুলোকেও প্রস্তুত করতে হবে এ জন্য। তিনি বলেন, অন্যভাবে বলা যায়, তাদের যুক্তিটা হচ্ছে এই যে, ইউক্রেন ন্যাটোতে যোগ দেবে, কিন্তু খুব শীঘ্র নয়। এমন দৃষ্টিকোণ থেকে বিশ্লেষণ করা একদম সঠিক নয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন কোন কোন পাশ্চাত্য দেশ চায় ইউক্রেন সঙ্কট অব্যাহত থাকুক। তারা ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে সংঘাত উস্কে দিতে চাইছে। স্নায়ুযুদ্ধ অবসানের পর রাশিয়া ও পাশ্চাত্যের মধ্যকার তীব্র দ্বন্দ্ব আরও গভীর করে তুলতে চাইছে তারা। লাভরভ নিরাপত্তা নীতি স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, অন্য দেশের নিরাপত্তা লঙ্ঘন করে কোন দেশই নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারে না। স্নায়ুযুদ্ধ থেকে প্রাপ্ত বিভক্তি রেখা পরিবর্তন করতে পারবে না কেউই।

তিনি বলেন, এ বিভক্তি রেখা এখনও অটুট রয়েছে। যদিও ওএসসিই তা মুছে দেয়ার চেষ্টা করছে। ন্যাটো সদস্যপদ লাভের জন্য ইউক্রেনের জোটনিরপেক্ষ মর্যাদা ত্যাগ করে কিয়েভ পার্লামেন্টে ২৩ ডিসেম্বর একটি আইন পাস করেন সদস্যরা। আইনটির প্রস্তাব করেন প্রেসিডেন্ট পেট্রোপোরোশেঙ্কো এবং ৩শ’ ৩ জন সদস্য তা সমর্থন করেন। একটি বিল আইনে পরিণত হওয়ার জন্য সর্বনিম্ন যে সদস্য সংখ্যা প্রয়োজন তার চেয়ে ৭৭ জন বেশি ছিলেন আইনটির পক্ষে।