২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ক্রাইস্টচার্চে ম্যাককুলাম-ঝড়


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বজুড়ে ব্যাটসম্যানরা ইদানিং টেস্ট ক্রিকেটটাকে ওয়ানডে বানিয়ে ফেলেছেন। ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম একধাপ এগিয়ে, ঝড় তোলা কিউই তারকা আভিজাত্যের সাদা পোশাকে যেন টি২০-ই খেলছেন! ক’দিন আগে আরব আমিরাতে একাই রুখে দিয়েছিলেন পাকিস্তানকে। সে ধারা অব্যাহত রেখে এবার ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে উইলোবাজিতে মাতলেন তিনি। ক্রাইস্টচার্চে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে রানের ফুলঝুরি ছোটালেন ৩৩ বছর বয়সী ডুনেডিন হিরো। তার ১৩৪ বলে ১৯৫ রানের ম্যারথান ইনিংসের ওপর ভর করে ৭ উইকেটে ৪২৯ রান তুলে প্রথম দিনটাও নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক কিউরা। কেবল সেঞ্চুরি নয়, ‘বক্সিং ডে’টাকে ঐতিহাসিক ও রেকর্ডময় করে নিয়েছেন ব্রেন্ডন ব্যারি ম্যাককুলাম!

বড়দিনের আনন্দমাখা শিশিরভেজা দিনে ক্রাইস্টচার্চে খেলা হয়েছে দশ ওভার কম। তাতে কী? ৮০ ওভারে কিউইরা যা করেছে, তার সিংহভাগজুড়ে ছিলেন কেবলই ম্যাককুলাম। ৮৮ রানে ৩ উইকেট হারানো দলকে কেবল বিপদ থেকে উদ্ধারই করেননি ব্যাট হাতে রীতিমতো ঝড় তুলেছেন তিনি। যার সৌজন্যে ব্যক্তিগত, কিউদের দলীয়সহ একাধিক আন্তর্জাতিক রেকর্ডও হয়েছে অদল-বদল! ৫ রানের জন্য ক্যারিয়ারের পঞ্চম ডাবল সেঞ্চুরি পাননি, মাত্র ১৩৪ বলে ১৯৫ রান করে অভিষিক্ত অফস্পিনার থারিন্ডু কুশলের বলে দিমুথ করুনারতেœর হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। কিউই সেনাপতির ইনিংসটি ১১ বিশাল ছক্কা ও ১৮ চার দিয়ে সাজানো! চলতি বছর ব্যাট হাতে ম্যাককুলাম কী অবিশ্বাস্য ফর্মে আছেন তার উদাহরণÑ ১ ট্রিপল সেঞ্চুরি, ২ ডাবল সেঞ্চুরি ও এই ১৯৫ নিয়ে ক্যারিয়ারের সেরা পাঁচ ইনিংসের চারটিই খেললেন ২০১৪ সালে!

যার মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ১০ বছরের টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে ১ হাজার বা তার বেশি রান পেলেন ড্যাশিং এই উইলোবাজ। ট্রিপল ও ডাবল মিলিয়ে সংখ্যাটা ৩Ñ মাইকেল ক্লার্কের (৪টি) পর বছরে সবচেয়ে বেশি ডাবল সেঞ্চুরির হাঁকানো টেস্ট ব্যাটসম্যানও ম্যাককুলাম। ৭৪ বলে সেঞ্চুরি (১০ চার, ৫ ছক্কা), ১০৩ বলে করেন ১৫০ রান (১৫ চার, ৮ ছক্কায়)! ১০৩ বলে দেড় শ’Ñ টেস্ট ইতিহাসের দ্রুততম দেড় শ’ রানের ইনিংসের নতুন রেকর্ড এটি। আর ৭৪ বলে ১০০Ñ নিউজিল্যান্ডের হয়ে দ্রুততম টেস্ট সেঞ্চুরির নতুন নজির। আগেরটিও ছিল ম্যাককুলামেরই ৭৮ বলে, গত মাসে শারাজায়, পাকিস্তানের বিপক্ষে। ম্যাককুলাম-ঝড়ে কাল ক্রাইস্টচার্চে তৈরি হয়েছে আরও অবিশ্বাস্য সব কীর্তি। ইনিংসের ১৮ ছক্কা নিয়ে চলতি বছর টেস্টে তার মোট ছক্কা ৩৩টি, যা একটি নতুন রেকর্ড। আগে যেটি যৌথভাবে ছিল অস্ট্রেলিয়ার এ্যাডাম গিলক্রিস্ট (২২টি, ২০০৫) ও ভারতের বিরেন্দর শেবাগের (২২টি, ২০০৮)। ৪, ৬, ৬, ০, ৪ ও ৬Ñ শ্রীলঙ্কান পেসার সুরাঙ্গা লাকমলের করা ৫৫তম ওভার থেকে ২৬ রান তুলে নেন ম্যাককুলাম! টেস্টে এক ওভারে চতুর্থ সর্বোচ্চ রানের নজির এটি। ওপরে কেবল ব্রায়ান লারা (২৮) - জর্জ বেইলি (২৮) ও শহীদ আফ্রিদি (২৭)। এ নিয়ে ওভারে দ্বিতীয়বার ২৬ রান তুললেন ম্যাককুলাম। ২০০ সালে হ্যামিল্টনে পাকিস্তানের ইউনুস খানের বিপক্ষেও সমান রান তুলে নিয়েছিলেন। ২০০৪ সালে অভিষেক হওয়া ম্যাককুলামের ৯১ টেস্টে মোট রান ৫,৮৪৮। সেঞ্চুরি ১১ ও হাফ সেঞ্চুরি ২৮টি। ইনিংসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৩০২ রান।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: