২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এবার মিশন আমেরিকা


আমেরিকার বিশাল এক ক্যাসিনো ব্যবসায়ী আগরওয়াল। তবে এ ব্যবসার আড়ালে আন্ডারওয়ার্ল্ডের মাফিয়া ডন সে। তার আছে ১২০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের একটি হীরার ভল্ট। আর এ ভল্ট ভেঙ্গে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায়ের যুদ্ধে নেমেছে সিলভা ও সানজানা এবং তাদের টিম। শুরু হয় ‘মিশন আমেরিকা’। সিলভা ও সানজানার ভূমিকায় অভিনয় করছেন নবাগত শায়ার আজিজ ও তমা মির্জা। আর এই এ্যাকশনধর্মী সিনেমা পরিচালনা করছেন কিস্তিমাতখ্যাত পরিচালক আশিকুর রহমান। পাশাপাশি কাহিনী ও চিত্রনাট্যও তাঁরই লেখা। ২২ ডিসেম্বর বেলা ১২ টায় গুলশানের ব্যাটন রুজ রেস্তোরাঁয় হয়ে গেল সিনেমাটির শুভ মহরত যেখানে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী, কলাকুশলী, পরিচালকসহ আরও অনেকেই। শূটিং শুরু করতে সিনেমার পুরো ইউনিট আমেরিকায় যাচ্ছে ২০১৫-এর ফেব্রুয়ারি নাগাদ। সিলভার ভূমিকায় অভিনয় করা শায়ার জানান এটি তার প্রথম সিনেমা। আর এজন্য নিজেকে প্রস্তুত করেছেন দীর্ঘদিন ধরে। জিম করেছেন ড্যান্স শিখেছেন। নিজের সেরা পারফর্ম্যান্স দেয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি। আর নায়িকা তমা মির্জার সঙ্গে জুটি বেঁধে প্রথম কাজ তাঁর। আর তমা মির্জা জানাচ্ছেন নিজের আগের কাজের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে আরও পরিণত কাজ করার প্রত্যাশা করছেন তিনি। নিজেকে সম্পূর্ণ নতুন রূপে দেখা যাবে বলে জানান তিনি। পাশাপাশি এমন অনিয়ম আর অবৈধ কাজের বিরুদ্ধে মিশনভিত্তিক কাহিনী যা কিনা তাঁর ক্যারিয়ারে নতুন পালক সৃষ্টি করবে বলে আশাবাদ তাঁর।

পরিচালক আশিকুর রহমানের মতে এটি একটা বিশাল টিমওয়ার্ক হতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই নিজের কল্পনায় সিনেমার শেষ পর্যন্ত দেখে ফেলেছেন তিনি। প্রয়োজন শুধু দৃশ্যায়নের। আর এজন্য তিনি বেছে নিয়েছেন আমেরিকাল লাস ভেগাস, নেভাদা অ্যারিজোনাসহ বেশ কিছু স্টেটস। ব্যবহার করা হবে রেড ক্যামেরাসহ অত্যাধুনিক সব প্রযুক্তি। সিনেমায় নতুনত্ব আনার প্রত্যাশা ব্যক্ত করে তিনি বলেন, ‘সিনেমার প্রতিটি মোচরে মোচরে নতুন টেস্ট পাবে দর্শকরা। কে না চায় বাংলা সিনেমায় চপার, ডেজার্টের মাঝ দিয়ে নায়ক-নায়িকাকে ভিলেনের ধাওয়া করার দৃশ্য কিংবা রেসিং কারের ব্যবহার দেখতে। এ সিনেমায় এসবই থাকছে।’ আর চরিত্র বাছাই প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘যারা অভিনয় করছে ঠিক তাদের কথা ভেবেই গল্প ও চিত্রনাট্য সাজানো হয়েছে।’ সুতরাং এ ক্ষেত্রেও তৃপ্তির ছাপ তাঁর চোখে-মুখে। সিনেমার অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেনÑ টাইগার রবি, ইরেশ যাকের, সাজু খাদেম, সালমান মুক্তাদিরসহ যুক্তরাষ্ট্রের বেশক’জন শিল্পী। তবে এ সিনেমায় সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে কে থাকছেন বা প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসেবে কারা থাকছেন তা এখনই জানাতে চাননি পরিচালক। এ জন্য অপেক্ষা করতে হবে পরবর্তী ঘোষণা পর্যন্ত।

বিশাল বাজেটের এ ছবি প্রযোজনা করছে রেইনবো পিকচার্স বাংলাদেশ ও রেইনবো মিডিয়া ইউএসএ। দেবাশীষ বিশ্বাসের উপস্থাপনায় সংবাদ সম্মেলনে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ফয়সাল আজিজ ও ফয়েজুল ইসলাম শাহিন। তাঁরা জানান, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে সমৃদ্ধ করতে ও দর্শকদের ভিন্নমাত্রার বিনোদন প্রদান করতে তাঁরা আগামীতে ৫টি চলচ্চিত্র উপহার দিতে যাচ্ছেন যার একটি ‘মিশন আমেরিকা’।

আনন্দকণ্ঠ ডেস্ক