২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মাইকিং করে ভূমিহীনদের কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ!


নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা, ২৩ ডিসেম্বর ॥ জেলার খালিয়াজুরি উপজেলা ভূমি অফিসের দুই কর্মচারীর বিরুদ্ধে মাইকিং করে ভূমিহীনদের মাঝে খাসজমি বন্দোবস্ত দেয়ার নামে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার চাকুয়া ইউনিয়নের বল্লী গ্রামের ভূমিহীনদের কাছ থেকে স্থানীয় মসজিদের এক ইমামের সহায়তায় এ রকম অভিনব পদ্ধতিতে ঘুষ নেয়া হয়। অভিযুক্ত কর্মচারীরা হচ্ছেন ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার কবীর হোসেন ও এমএলএসএস বদিউজ্জামান। বল্লী গ্রামের জনৈক জমশেদ আলী চৌধুরী মঙ্গলবার এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগে জানা যায়, ওই দুই কর্মচারী সোমবার সন্ধ্যায় বল্লী গ্রামে গিয়ে খাসজমি বন্দোবস্ত এবং আদর্শ গ্রামে (গুচ্ছ গ্রামে) ঘর-বাড়ি দেয়া বাবদ প্রত্যেক ভূমিহীন পরিবারকে ২শ টাকা করে জমা দেয়ার আহ্বান জানিয়ে স্থানীয় মসজিদের ইমাম জসীম উদ্দিন ও মুসল্লি সজুলের সহযোগিতায় মাইকিং করান। মাইকিং শুনে ১১১ জন গ্রামবাসী ২শ’ টাকা করে জমা দেন। অভিযোগ পাওয়ার পর ইউএনও বদরুল হাসান লিটন মঙ্গলবার বিষয়টি তদন্ত করতে বল্লী গ্রামে যান। ইউএনও জানান, সোমবার সন্ধ্যায় অফিসিয়ালি কোন কর্মচারীকে ওই গ্রামে পাঠানো হয়নি।

তদন্তের পর এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে সার্ভেয়ার কবীর হোসেন মঙ্গলবার ইমাম জসীম উদ্দিন ও সজুল হোসেনের বিরুদ্ধে খালিয়াজুরি থানায় জিডি করেছেন। কবীর হোসেন দাবি করেন, জসীম উদ্দিন এবং সজুল হোসেন স্বপ্রণোদিতভাবেই মাইকিং করেছেন। তিনি বা তারা তাকে মাইকিং করতে বলেননি।