১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠছে বোকো হারাম


নাইজিরিয়ার হাজার হাজার বোকো হারাম জঙ্গী ক্যামেরুন সীমান্ত জুড়ে হামলা চালিয়েছে। একই সঙ্গে দেশটির সীমান্তশহর, সেনাবহর এবং প্রধান প্রধান ব্যারাকেও হামলা চালিয়েছে জঙ্গী সংগঠনটির সদস্যরা। খবর ডন অনলাইনের।

এদিকে নাইজিরিয়ার উত্তর-পূর্বের শহরগুলোর দখল নিতে শাদ থেকে সদস্য সংগ্রহ করছে বোকো হারাম।

অপরদিকে বোকো হারাম জঙ্গীদের তৎপরতায় নাইজিরিয়া থেকে উৎখাত হওয়া হাজার হাজার শরণার্থীর জন্য মানবিক সহায়তার আবেদন জানিয়েছে নাইজার। এসব ঘটনায় স্পষ্ট যে, নাইজিরিয়ায় ইসলামী জঙ্গীদের উত্থানে প্রতিবেশী দেশগুলোও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

নাইজিরিয়ায় বোকো হারাম জঙ্গীদের গত পাঁচ বছরের জঙ্গী তৎপরতায় হাজার হাজার লোক মারা গেছে। আর ১৬ লাখ লোক ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে।

এ বিষয়ে ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের আফ্রিকা বিষয়ক ডিরেক্টর কমফোর্ট ইরো বলেন, বোকো হারাম জঙ্গীদের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন। এ অঞ্চলে বোকো হারাম জঙ্গীরা কতটা প্রভাব ফেলতে পারে নাইজিরিয়া এ বিষয়টি তেমন অনুধাবন করতে পারছে না। এখানকার প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যকার সহযোগিতার মাত্রা খুব কম। সেখানে কোন দেশই একে অপরের সঙ্গে তথ্য বিনিময়ে আগ্রহী নয়।

বোকো হারাম জঙ্গী যে প্রতিবেশী দেশগুলোর জন্যও হুমকি হয়ে উঠেছে এ বিষয়টি গত বুধবার ক্যামেরুনে হামলার মধ্য দিয়ে স্পষ্ট হয়। এ সময় অন্তত ৫ হাজার বোকো হারাম জঙ্গী দেশটির সীমান্তশহরগুলোতে হামলা চালায় বলে দেশটির প্রতিরক্ষা দফতর জানায়। হামলাকালে বিস্ফোরক ডিভাইসের সাহায্যে রাস্তার পাশের সামরিক কনভয় জ্বালিয়ে দেয়া হয়। পাশপাশি ক্যামেরুনের সীমান্তশহর আমচাদের প্রধান ব্যারাকেও হামলা চালানো হয়। এ সময় ক্যামেরুন সৈন্যদের প্রতিরোধে ১১৬ বোকো হারাম জঙ্গী মারা যায়।