২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আফ্রিদির সিদ্ধান্তে ভক্তদের হতাশা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘ক্রিকেটই একমাত্র মাধ্যম যার মধ্যে আমরা সুখ খুঁজে পাই। পেশোয়ার থেকে করাচী, মুলতান থেকে লাহোর, প্রতিদিন কেবলই নৃশংশতা, খুন-হত্যা আর সন্ত্রাস। গত অর্ধশতাব্দীজুড়ে আমি এটাই দেখে আসছি। অতঙ্কিত হৃদয়ে খনিকের আনন্দ দিয়েছে কেবল ক্রিকেট। যেখানে ক্রিকেটাররা আমাদের জন্য আনন্দদায়ী দূত; ওয়াসিম আকরাম, সাঈদ আনোয়ার, শহীদ আফ্রিদি সেখানে সামনের সারিতে। বুম বুম আফ্রিদির খেলা দেখতে ট্যাক্সি গ্যারেজে রেখে কতদিন যে মাঠে গিয়েছি...।’ কথাগুলো বলেন ৫৯ বছর বয়সী পাকিস্তানী নাগরিক কামাল খান, যিনি গত তের বছর ধরে আবুধাবির রাস্তায় ট্যাক্সি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন। তুখোড় তারকা আফ্রিদি শনিবার সংবাদমাধ্যমকে পরিষ্কার জানিয়ে দেন, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে আসন্ন বিশ্বকাপই হবে ওয়ানডেতে তার বিদায়ী টুর্নামেন্ট, এরপর খুলে রাখবেন একদিবসীয় রঙিন পোশাক। দীর্ঘ দেড় যুগ ধরে ব্যাটে-বলে আনন্দ দিয়ে আসছেন ৩৪ বছর বয়সী পাকিস্তানী ক্রিকেটার। ‘প্রথম পাকিস্তানী হিসেবে নিজের ইচ্ছায় অবসর নেয়ার মধ্যে এক ধরনের সুখ আছে! আসন্ন বিশ্বকাপ শেষে ওয়ানডেকে পুরোপুরি বিদায় জানাব আমি। ভক্তদের কথা ভেবে খারাপ লাগছে, তবে আমার শূন্যস্থান একদিন পূরণ হবে’Ñ বলেন আফ্রিদি। এর আগে একাধিকবার অবসরের ঘোষণা দিয়ে আবার ফিরে এসেছেন। তাই ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের মাঠের মতো বাইরের পারফরম্যান্সেও ভরসা কম! ২০০৯ সালে লাহোরে সফরকারী শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের বহনকারী বাসে বন্ধুকধারীদের হামলার পর থেকে আর কোন বিদেশী দল সে দেশ সফর করেনি। নিজঘরে অচ্ছুত পাকিস্তানের জন্য আরব আমিরাত হয়ে উঠেছে ‘দ্বিতীয়’ হোম ভেন্যু। বিশ্বকাপ সামনে রেখে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সদ্যসমাপ্ত ওয়াডে সিরিজে ভক্তদের চোখ ছিল আফ্রিদির দিকে। সেখানে দলীয় নৈপুণ্য যথারীতি ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ হলেও (৩-২এ সিরিজ হার) দুরন্ত ছন্দে প্রথম যৌবনের সেই ফর্মের ইঙ্গিত দেন বুম বুম! দ্বিতীয় ম্যাচে নিয়মিত অধিনায়ক মিসবাহ ইনজুরিতে পড়লে কিউইদের বিপক্ষে শেষ তিন ওয়ানডেতে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন আফ্রিদি। দুই হাফসেঞ্চুরির সাহায্যে সংগ্রহ করেন ২০৫ রান। স্ট্রাইকরেট ১৬৪! বল হাতে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৮ উইকেট। বিশ্বকাপের আগে চিরেচেনা রূপে আবির্ভূত হন ক্রেজি হিরো। হুট করে তার এই আগাম অবসরের ঘোষণায় তাই আশাহত ভক্তরা। কামাল খানের মতো অনেকেই তাকে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছেন। ১৯৯৬ সালে ওয়ানডে দিয়ে পাকিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া আফ্রিদি ৩৮৯টি ম্যাচ খেলেছেন। ৬টি সেঞ্চুরি ও ৩৮টি হাফ সেঞ্চুরির সাহায্যে করেছেন ৭ হাজার ৮৭০ রন। লেগস্পিন জাদুতে নিয়েছেনে ৩৯১ উইকেট।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: