২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পাকিস্তানে আরও চার জঙ্গীর ফাঁসি কার্যকর


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ পাকিস্তানে রবিবার আরও চার জঙ্গীর ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। ফয়সালাবাদের একটি জেলা কারাগারে ওই চারজনের ম"ত্যুদ- কার্যকর করা হয়। এদের তিনজন পাকিস্তানী এবং একজন রুশ নাগরিক। পেশোয়ারে আর্মি পাবলিক স্কুলে তালেবান হামলায় শিক্ষার্থীসহ ১৪৯ জনকে হত্যার পর মোট ৬ জনের ফাঁসি কার্যকর হলো। যাদের ম"ত্যুদ- কার্যকর করা হয় তারা হলোÑ গোলাম সারওয়ার, রশিদ টিপু, জোবায়ের আহমেদ ও আখলাক আহমেদ। খবর বিবিসি, এনডিটিভি ও ডন অনলাইনের।

পূর্বাঞ্চলীয় শহর ফয়সালাবাদের এক কারা কর্মকর্তা এএফপিকে বলেন, গোলাম সারওয়ার, রশিদ টিপু, জোবায়ের আহমেদ ও আখলাক আহমেদকে পারভেজ মোশারফ হত্যা চেষ্টার অভিযোগে ম"ত্যুদ- দেয়া হয়েছিল।

পাঞ্জাব প্রাদেশিক সরকারের দুই শীর্ষ কর্মকর্তা ম"ত্যুদ- কার্যকরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ্যাসোসিয়েট প্রেস অব পাকিস্তান (এপিপি) জানায়, বর্বর জঙ্গীদের এ সময় ভীত দেখা"িছল এবং তারা তাদের নিষ্ঠুর, অমানবিক এবং অনৈসলামিক কর্মকা-ের জন্য ক্ষমা চান। এপিপি আরও জানায়, জঙ্গীরা স্বীকার করেছে, তাদের পাশবিক এবং অমানবিক কার্যকলাপের জন্য আজ তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছে।

পাক সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফ ব"হস্পতিবার মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত ছয় জঙ্গীর ম"ত্যুপরোয়নায় সই করেন। ফয়সালাবাদে শুক্রবার দুই জঙ্গী আকিল ওরফে উসমান ও আরশাদ মেহমুদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। এর আগে পেশোয়ারে আর্মি পাবলিক স্কুলে হত্যাযজ্ঞের পর পাকিস্তান সরকার ম"ত্যুদ- কার্যকরে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। এদিকে ডন অনলাইন অপর এক খবরে জানায় মঙ্গলবার ফাঁসি কার্যকরের কথা ছিল নাজিম নামে এমন এক জঙ্গী শনিবার হার্ট এ্যাটাকে মারা গেছে।

পাকিস্তানে ম"ত্যুদ- কার্যকরে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ায় মানবাধিকার সং¯′াগুলো সরব হয়েছে। এছাড়া জাতিসংঘ সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছে।

এদিকে পাকিস্তানের পেশোয়ারে শান্তি সম্মেলন করার ঘোষণা দিয়েছে ওআইসি (অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন)। সন্ত্রাসবাদ দূর করতে একটি যৌথ কৌশল প্রণয়নে মুসলিম দেশগুলোর আলেম ও রাষ্ট্রদূতদের নিয়ে এ সম্মেলন করা হবে। শনিবার ওআইসির মহাসচিব ইয়াদ আমিন মাদানী খাইবার পাখতুনখোয়ার মুখ্যমন্ত্রী পারভেজ খাত্তাকের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন। সেনাবাহিনী পরিচালিত স্কুলে জঙ্গী হামলার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে থাকা কায়েদ-ই আজম বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া কিছু বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় আজ সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। অপরদিকে শতাধিক শিশু হত্যার ঘটনায় রবিবার আর্মি পাবলিক স্কুলের সামনে হাজার হাজার শোকাহত মানুষ বিক্ষোভ করেছে। এ সময় তাঁরা টিটিপি এবং জঙ্গীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া এবং জঙ্গীদের ম"ত্যুদ-ের দাবি জানান। সাবেক সেনাশাসক জেনারেল (অব) পারভেজ মোশারফের ওপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত চার জনের ফাঁসি রবিবার কার্যকর করা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: