২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গরুর ভাববিনিময় ভাষা উন্মোচিত


গরুর ভাববিনিময় ভাষা উন্মোচিত

প্রাণিকুলের প্রায় প্রতিটি জীব অঙ্গভঙ্গি এবং নানামাত্রিক ধ্বনির মাধ্যমে স্বজাতির সঙ্গে ভাববিনিময় করে। এ যাত্রায় নতুন করে যুক্ত হলো গরুর নাম। গবেষকরা এবার গরুর ‘হাম্বা’ ধ্বনির রহস্য উদ্ঘাটন করতে সক্ষম হয়েছেন। যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব নটিংহ্যাম এবং কুইন মেরি ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের গবেষকরা যৌথভাবে বাছুরের সঙ্গে গাভীর কথোপকথনের মাজেজা উন্মোচন করতে সক্ষম হয়েছেন। আর এ জন্য তাঁরা ১০ মাস ধরে বিভিন্ন আকার ও বয়সের গরুর ব্যক্ত করা ধ্বনি এবং ধ্বনি পরবর্তী আচরণ বিস্তৃতভাবে অনুসরণ করেছেন।

গবেষণার প্রথমদিকে ধারণা করা হচ্ছিল, প্রতিটি গরু আলাদা আলাদা স্বর এবং শব্দে অন্য গরুর সঙ্গে যোগাযোগ করে। গবেষকরা জানিয়েছেন, সব ক্ষেত্রেই গাভী এবং বাছুরের মধ্যে তিনটি পদাংশে ভাববিনিময় ঘটে। নিশ্চিত হওয়ার জন্য ট্রেন্টের রেডক্লিফে এবং নটিংহ্যামশায়ারের দুটি ভিন্ন গরুর খামারে এ গবেষণা চালান। গবেষণা শেষে দেখা গেছে, উভয়ক্ষেত্রেই ফলাফল অভিন্ন।

গবেষণা অনুযায়ী সাধারণত তিন উপায়ে বাছুর এবং তার মা নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ করে। বাছুর যখন দুধ খেতে চায়, তখন সে এক রকম শব্দ করে। মা যখন কাছে থাকা বাছুরের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করে তখন সে নরম স্বরে নিচু কম্পাঙ্কে ডাকে, অন্যদিকে বাছুর যখন দৃষ্টিসীমার বাইরে থাকে তখন মা অতি উচ্চস্বর এবং উচ্চ কম্পাঙ্কে বাছুরকে আহ্বান করে।

-টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে ইব্রাহিম নোমান

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: