২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সুহৃদ ই-াস্ট্রিজের পরিচালনা পর্ষদ পুনর্গঠন


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ পুনর্গঠন করা হয়েছে। কোম্পানির বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) ও বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মাহমুদুল হাসানকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এছাড়া কোম্পানির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ তুহিন রেজা।

শনিবার সকালে গাজীপুরের বাইমাইল, কোনাবাড়ী কারখানা প্রাঙ্গণে ইজিএম ও এজিএম অনুষ্ঠিত হয়। কোম্পানির শেযারহোল্ডারদের সর্বসম্মতিক্রমে ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ পুরো পর্ষদ পুনর্গঠিত হয়েছে। সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের পুনর্গঠিত পর্ষদে আরও সংযুক্ত হয়েছেনÑ পরিচালক মোঃ দেলোয়ার হোসেন টিটু, মাহফুজ হাসান ও স্বতন্ত্র পরিচালক এনামুল কবির, এফসিএ। এ বিষয়ে নতুন এমডি মাহমুদুল হাসান বলেন, শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিক্রমে সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের নতুন পরিচালনা পর্ষদ গঠন করা হয়েছে। জাহিদুল হকের স্থলে আমি এমডি হিসেবে মনোনীত হয়েছি। পাশাপাশি নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে তুহিন রেজা নির্বাচিত হয়েছেন। ইজিএমে কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন ৫০ কোটি থেকে ১০০ কোটি টাকায় উন্নীত করার সিদ্ধান্ত অনুমোদিত হয়েছে। এ ছাড়া একজন স্বতন্ত্র পরিচালককে মনোনায়ন দেয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এজিএম শেষে আমরা পুনর্গঠিত পরিচালনা পর্ষদ প্রথম বোর্ডসভা করেছি। বোর্ডসভায় ১৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ অনুমোদন করেছি।

জানা গেছে, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে জাহেদুল হক দীর্ঘ ১০ বছর অবৈধভাবে স্বপদে বহাল থেকেছেন। এ বিষয়ে শেয়ারহোল্ডাররা একাধিকবার অভিযোগ করলেও তিনি জোরপূর্বক পরিচালকদের দমিয়ে রেখে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন। এ প্রেক্ষাপটে এজিএমে শেয়ারহোল্ডাররা এমডি পদে জাহেদুল হকের পরিবর্তে মাহমুদুল হাসানকে মনোনীত করেন।

এ দিকে দীর্ঘ ১০ বছর অবৈধভাবে স্বপদে বহাল থাকায় গত ১৮ অক্টোবর লিগ্যাল এ্যাডভাইজার এএম আমিন উদ্দিন কোম্পানি বরাবর চিঠি দিয়ে জাহেদুল হকের দায়িত্ব পালন অবৈধ বলে মত দেন। এরপরও এমডির দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এমনকি বিশেষ সাধারণ সভা করার কোন উদ্যোগ নেননি জাহেদুল হক। এরই মধ্যে কোম্পানিটি গত জুনে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। কিন্তু আইপিও প্রসপেক্টাসে এ সব বিষয় লুকানো হয়।

পরবর্তী সময়ে সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহেদুল হকের বিরুদ্ধে সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারহোল্ডার নোমান রশিদ চৌধুরী অভিযোগ করেন। গত ২৯ নবেম্বর অভিযোগটি তিনি অর্থমন্ত্রী ও বিএসইসির কাছে দাখিল করেন।

যার পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৫ ডিসেম্বর সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহেদুল হককে তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের ব্যাখ্যা তিন কার্যদিবসের মধ্যে দেয়ার নির্দেশ দেয় বিএসইসি। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের আগেই গত ১৮ ডিসেম্বর সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহেদুল হকের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে স্বপদে বহাল থাকার অভিযোগ খতিয়ে দেখতে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। কমিটিকে পরবর্তী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।