২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

পকেট ড্রোন!


পকেট ড্রোন!

প্রযুক্তির জাদু অভাবনীয় জিনিস। মুহূর্তকাল পরেই ভোজবাজির মতো জায়গা করে নিচ্ছে মানুষের দৈনন্দিন জগতে। একটা সময় স্মার্টফোন ছিল কল্পনাতীত। কিন্তু এখন স্মার্টফোন পাওয়া যাচ্ছে মুড়িমুড়কির মতো মানুষের হাতে হাতে। আর এ তালিকায় নতুন করে যুক্ত হচ্ছে প্রাইভেট ড্রোন । গবেষকরা বলছেন, শীঘ্রই ড্রোন জায়গা করে নেবে মানুষের পকেটে কিংবা হাতব্যাগে।

নেদারল্যান্ডসের ডেল্ফট ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির গবেষকরা শহুরে পরিবেশ এবং ঘনবসতিপূর্ণ জায়গায় ব্যবহার উপযোগী একটি ড্রোন উদ্ভাবন করেছেন। এর ওজন মাত্র চার গ্রাম। ক্ষুদে এই ড্রোনের ভেতরে রয়েছে পুরোপুরি কার্যক্ষম একটি ক্যামেরা। স্বল্পখরচের স্বনিয়ন্ত্রিত ড্রোনটি ওড়ানো যাবে স্মার্টফোনের জিপিএস ব্যবহার করে। যেখানে জিপিএস নেই সেখানেও রিমোট ব্যবহার করে এটির গতি ও দিকনির্দেশ করা যাবে।

ইউরোপ ও আমেরিকায় আকাশ থেকে ছবি তোলা, জমি জরিপের জন্য ছবি তোলা, প্যাকেটে করে মাল সরবরাহ করা এবং চিকিৎসাসেবায় ড্রোনের ব্যাপক ব্যবহার রয়েছে। গবেষকদলের সদস্য বার্ট রেমেস জানান, বিশ্বের সবচেয়ে ছোট আকৃতির এ ড্রোনটি কোন কিছুতে আঘাত করলে বা কারও মাথায় পড়লে কোন ধরনের ক্ষতি হবে না।

বিবিসি অবলম্বনে ইব্রাহিম নোমান

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: