২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ক্ষমতায় এলে খালেদার আমলের সব হত্যার বিচার করব


ক্ষমতায় এলে খালেদার আমলের সব হত্যার বিচার করব

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ক্ষমতায় এলে খালেদা জিয়ার শাসনামলের সকল হত্যাকা-ের বিচার করবেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। পাশাপাশি খালেদার হাতে নিহতদের স্মরণে স্মৃতিসৌধ করারও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেছেন, খুনী আমি নই; খুনী আপনি (খালেদা জিয়া)।

বুধবার রাজধানীর বিজয়নগরে জাপা আয়োজিত বিজয় দিবসের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন তিনি। ক্ষমতায় এলে শিক্ষাঙ্গনে সকল হত্যাকা- বন্ধেরও ঘোষণা দেন সাবেক এই স্বৈরশাসক।

বিএনপির হাতেই প্রতিহিংসার রাজনীতির সূচনাÑ এমন মন্তব্য করে সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ বলেন, বাংলাদেশে প্রথম প্রতিহিংসার রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করেছিল বিএনপি। আমাকে জেলে ভরে, মিটিং করতে না দিয়ে, মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে প্রতিহিংসা চরিতার্থ করে তারা। অথচ সেই দলটি এখন গণতন্ত্রের কথা বলে। যাঁরা গণতন্ত্র ও লেবেল প্লেয়িং ফিল্ডের কথা বলেনÑ আমাকে যখন জেলে নেয়া হয়েছিল, অন্যায়ভাবে অত্যাচার করা হয়েছিল তখন আপনাদের গণতন্ত্র কোথায় ছিল?

এরশাদ বলেন, বিএনপি নেত্রী প্রায়ই বলেন এরশাদ খুনী। আমি তাঁকে বলতে চাই আয়নায় নিজের চেহারা দেখবেন। আপনি ক্ষমতায় থাকতে সারের জন্য আন্দোলন করায় গাইবান্ধায় ১৮ জন কৃষককে হত্যা করেছিলেন। তাঁদের নামের তালিকা আছে। আমি ক্ষমতায় গেলে কৃষকদের নামে সেখানে স্মৃতিসৌধ করব। এর নাম দেয়া হবে ‘বিএনপির দুঃশাসনের শিকার।’ খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, ক্ষমতায় থাকতে বিদ্যুতের দাবিতে আন্দোলন করায় কানসাটে ২০ জনকে গুলি করে হত্যা করেছিলেন। সুযোগ এলে নিহতদের নামে স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করব। খালেদা জিয়ার উদ্দেশে এরশাদ বলেন, ক্ষমতায় এসে দেশে জঙ্গীবাদের সূত্রপাত করেছিলেন আপনি। দেশের ৬৩ জেলায় একযোগে বোমা হামলা, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা, কিবরিয়া হত্যাসহ অসংখ্য মানুষকে হত্যা করেছেন। ক্ষমতায় এলে মানুষ হত্যার হিসাব নেব। আপনাকে বলতে চাইÑ খুনী এরশাদ না, আপনি (খালেদা জিয়া)। জাতীয় পার্টি মহানগর দক্ষিণ আহ্বায়ক আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেনÑ দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, এম এ হান্নান, সাঈদুর রহমান টেপা, সিরাজুল ইসলাম, এসএম ফয়সল চিশতী, ওরশন আরা মান্নান প্রমুখ।