২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জয় শহীদ জুয়েল একাদশের


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ শহীদ জুয়েল ছিলেন আজাদ বয়েজ ক্লাবের আক্রমণাত্মক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। মুক্তিযুদ্ধের সময় অস্ত্র হাতে বীরত্বের সঙ্গে যুদ্ধ করেন তিনি। কিন্তু পাকহানাদার বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে শহীদ হন। শহীদ মুশতাক ছিলেন ক্রীড়া সংগঠকএ আজাদ বয়েজ ক্লাবেরই অন্যতম প্রধান সংগঠক। ২৫ মার্চের কালো রাতে দখলদার বাহিনীর হাতে প্রিয় ক্লাবের খুব কাছেই শহীদ হন। এ দুই শহীদের স্মরণে প্রতিবছরই ১৬ ডিসেম্বর বিসিবি প্রদর্শনী ক্রিকেটের আয়োজন করে। এবারও করেছে। এবার ৪৯ রানে জয় পেয়েছে শহীদ জুয়েল একাদশ। শহীদ জুয়েলের বড় বোন সুরাইয়া খান পুরস্কার বিতরণ করেন। উপস্থিত ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, শহীদ জুয়েলের ছোট্ট বোন সালমা চৌধুরীও।

মুক্তিযুদ্ধের দুই বীর শহীদ আব্দুল হালিম চৌধুরী জুয়েল ও শহীদ মুশতাক আহমেদের স্মরণে ১৯৭২ সাল থেকে প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে এই প্রীতি ম্যাচ। দুই দলে ভাগ হয়ে এতে এবার মুখোমুখি হয়েছিলেন সাবেক ক্রিকেটাররা। মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ২০ ওভারের ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শহীদ জুয়েল একাদশ ৭ উইকেটে ১৩২ রান করে। সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন ম্যাচ সেরা হাবিবুল বাশার। ৪৪ বলে ৭টি চারে ইনিংস গড়েন হাবিবুল। তার সঙ্গে ৯৬ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়া জাভেদ ওমর বেলিমের ব্যাট থেকে আসে ২৪ রান। এছাড়া আকরাম খান করেন ১৬ রান। শহীদ মুশতাক একাদশের নাঈমুর রহমান ও সাইফুল্লাহ জেম তিনটি করে উইকেট নেন। জবাবে ৮৩ রানে অলআউট হয়ে যায় ফারুক আহমেদের নেতৃত্বাধীন শহীদ মুশতাক একাদশ। সর্বোচ্চ ৩৫ রান বরেন সাজ্জাদ আহমেদ শিপন। এহসানুল হক করেন ১০ রান। শহীদ জুয়েল একাদশের জিয়াউর রশীদ ও শফিউদ্দিন আহমেদ তিনটি করে উইকেট নেন।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: