২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নাম্বার ওয়ান সুয়ারেজ!


নাম্বার ওয়ান সুয়ারেজ!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত বিশ্বকাপ চলার সময়েই লুইস সুয়ারেজের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে গেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সিলোনা। বিশ্বকাপে ইতালির ডিফেন্ডার জিওর্জিও চিয়েল্লিনিকে কামড়ে দেয়ার অপরাধে নিষেধাজ্ঞার খড়গ নেমে আসে তাঁর ওপর। এরপরও লিভারপুল থেকে সুয়ারেজকে আনার পরিকল্পনা বাদ রাখেনি বার্সা। দলে এলেও মৌসুমের শুরুর দিকে খেলতে পারেননি নিষেধাজ্ঞার কারণে। তাঁকে নিতে সবমিলিয়ে বার্সা ২৫২ মিলিয়ন ইউরো খরচ করেছে। আর সে কারণে বছরের ট্রান্সফারে এক নম্বরে অবস্থান হয়েছে সুয়ারেজের। গোল ডট কমের জরিপে তাঁকে নাম্বার ওয়ান হিসেবে রাখা হয়েছে। বছরের সেরা দশটি ট্রান্সফার নিয়ে গবেষণা চালিয়েছে গোল ডট কম। এক্ষেত্রে কোন ফুটবলারের তারকা খ্যাতি, ট্রান্সফার ফি এসব বিষয় বিবেচনায় আনা হয়েছে। এছাড়া চুক্তির অর্থ, এজেন্টের প্রাপ্ত অর্থ এসবও জরিপে দেখা হয়েছে। সবমিলিয়ে দেখা গেছে সুয়ারেজকে দলে ভেড়াতে সবমিলিয়ে ২৫২ মিলিয়ন ইউরো খরচা করেছে বার্সা। বছরের সেরা ট্রান্সফার হিসেবে তাই সুয়ারেজ এক নম্বরে উঠে এসেছেন তালিকায়। খুব একটা পিছিয়ে নেই এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। এবার স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে তিনি পাড়ি জমিয়েছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে। এ জন্য ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের এ ক্লাবকে ব্যয় করতে হয়েছে ২৪১ মিলিয়ন ইউরো। এ দুটি ট্রান্সফার বছরের সবচেয়ে ব্যয়বহুল হিসেবে তালিকার শীর্ষে। এছাড়া ২০০ মিলিয়নের ওপর আর কোন ট্রান্সফার হয়নি। তৃতীয় সেরা ট্রান্সফারও রিয়াল মাদ্রিদের। কলম্বিয়ার তারকা এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার জেমস রড্রিগুয়েজকে ফ্রান্সের দল মোনাকো থেকে তাঁকে সর্বমোট ১৬৯ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে দলে ভিড়িয়েছিল রিয়াল। চার নম্বরে বার্সিলোনা। তারা এ্যালেক্সিস সানচেজকে আর্সেনাল থেকে দলে আনতে খরচা করেছে ১৪৩ মিলিয়ন ইউরো। সেরা পাঁচে ম্যানইউয়ের লুক শ আছেন। এই টিনএজার তারকাকে ১৩১ মিলিয়ন ইউরো ব্যয়ে সাউদাম্পটন থেকে এনেছে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ক্লাবটি। এছাড়া তালিকায় আছে ডিয়েগো কোস্তা (এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ থেকে চেলসি), চেস ফ্যাব্রেগাস (বার্সিলোনা থেকে চেলসি), জুয়ান মাতা (চেলসি থেকে ম্যানইউ), ডেভিড লুইজ (চেলসি থেকে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন) এবং এলিয়াকুইম মাঙ্গালা (পোর্টো থেকে ম্যানচেস্টার সিটি)।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: