২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

এবার ১১১ ছিটমহলে ঘটা করে পালিত হচ্ছে বিজয় দিবস


রাজু মোস্তাফিজ, কুড়িগ্রাম থেকে ॥ খাঁচায় বন্দী জীবন থেকে মুক্তি চাই- এই দাবিতে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতের ১১১টি ছিটমহল একযোগে মঙ্গলবার পালিত হবে মহান বিজয় দিবস। আনন্দঘন পরিবেশে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির ব্যানারে এ কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়। ফুলবাড়ী উপজেলার অভ্যন্তরে দাশিয়ার ছড়া ছিট মহলের কালিরহাটে প্যান্ডেল করে আয়োজন করা হয়েছে মূল অনুষ্ঠানের। এ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ইতোমধ্যে ভারত থেকে ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির ভারতীয় চ্যাপ্টারের সহ-সাধারণ সম্পাদক দীপ্তিমান সেনগুপ্ত, এ্যাডভোকেট আহসান হাবীব ও বিশিষ্ট সাহিত্যিক অমর মিত্র অতিথি হিসেবে এসেছেন। প্রধান অতিথি কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মোঃ জাফর আলী। এছাড়া উপস্থিত থাকবেন ফেলানী হত্যার অন্যতম আইনজীবী এ্যাডভোকেট এস এম আব্রাহাম লিংকন। বাংলাদেশ ও ভারতের অভ্যন্তরে অবস্থিত ১৬২টি ছিটমহলের মানুষ নতুন আশায় বুক বাঁধেছেন। ছিটমহলের বাসিন্দাদের মধ্যে বইছে আনন্দ উল্লাস ও খুশির হাওয়া। পাশাপাশি আছে বঞ্চনার বেদনা। টানা ৬৫ বছরের খাঁচার বন্দী জীবন থেকে মুক্তি লাভের প্রহর গুনছেন। তাদের এ সময়কার অনুভূতিগুলো নানান রং ছড়াচ্ছে। তারা নিয়মিত খোঁজ রাখছেন ভারতের কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের কর্মকা-ের দিকে। যেন আর কোন বাঁধার সৃষ্টি না হয় এজন্য মসজিদ-মন্দিরে চলছে প্রার্থনা। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাঁধায় এতদিন ঝুলে ছিল ছিটমহল সমস্যা। তবে এবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ছিটমহলবাসীদের সমস্যা সমাধানে আগ্রহ প্রকাশ করায় এবার সবাই আশাবাদী। ছিটমহল বিনিময় চুক্তি কার্যকর হলে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতের ১১১টি ছিটমহল বাংলাদেশের সঙ্গে একীভূত হবে। ফলে এবার ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে বিজয় দিবস। এসব ছিটমহলের মানুষ বাংলাদেশে থেকে যেতে চান। কারণ যুগ যুগ ধরে তারা নানাভাবে জড়িয়ে আছেন এদেশের সাথে। অনুভব করেন নারীর টান।

ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটি বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা জানান, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতের ১১১টি ছিটমহলে যথাযোগ্য মর্যদায় বিজয় দিবস পালিত হবে। এ উপলক্ষে সকালে দাশিয়ার ছড়া ছিটের কালিরহাটে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ, আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সালাম গ্রহণ, সমাবেশ, আলোচনা সভা ও স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।