২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নতুন যুগে প্রবেশ করেছে ডিএসই ॥ অর্থপ্রতিমন্ত্রী


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বেসরকারী খাত অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল চালিকাশক্তি। এ খাতের সংস্কারে ও সমস্যা সমাধানে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। আর প্রধান বাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে নতুন স্বয়ংক্রিয় লেনদেন ব্যবস্থা চালু করে নতুন যুগে প্রবেশ করেছে। সরকার এ কার্যক্রমকে অভিনন্দন জানাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, এমপি। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর সোনরাগাঁও হোটেলে ডিএসইর নতুন স্বয়ংক্রিয় লেনদেন ব্যবস্থা উদ্বোধন শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, সরকার শুধু ব্যবসাবান্ধব নয়, সরকার জনবান্ধব। দেশে সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাবে। তিনি বলেন, ইতিবাচক পরিবর্তন করে আধুনিক, বিজ্ঞানসম্মত এবং ন্যায়বিচার নির্ভর সমাজ গড়তে চাই। এজন্য জনগণের সমর্থন প্রয়োজন। তিনি আরও বলেন, এ কারণেই সরকার ব্যবসায়ীদের ওপর অযাচিত হস্তক্ষেপ করবে না।

ডিএসইর অটোমেশন সরকারের ডিজিটাল প্রতিশ্রুতির অংশ উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা ক্ষমতায় আসার আগে ডিজিটাল দেশ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। এই সফটওয়ার চালুর মাধ্যমে দেশ আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল। আমরা ব্যবসায়ীদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ বজায় রাখবো। দেশের অর্থনীতি স্থিতিশীল রাখতে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. খায়রুল হোসেন বলেন, শেয়ারবাজারের উন্নয়নে অনেকদিন ধরে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। বিনিয়োগকারীদের সচেতনতা বৃদ্ধি, প্রয়োজনীয় আইন সংশোধন, স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনা, প্রাতিষ্ঠানিক সুশাসন প্রতিষ্ঠায় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। তিনি বলেন, বাজারে কারসাজি শনাক্ত করতে আমরা আধুনিক প্রযুক্তির সার্ভিলেন্স সফটওয়্যার ব্যবহার করছি। দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জ উন্নত সফটওয়্যার ব্যবহার করছে। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে প্রতিনিয়ত বিদেশী বিনিয়োগ বাড়ছে। আগামীতে এ হার আরও বাড়বে।

ড. স্বপন কুমার বালা বলেন, আমরা যথাযথ পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় লেনদেন সিস্টেমটি চালু করতে যাচ্ছি। সিস্টেমটি চালুর জন্য বিভিন্ন ব্রোকারকে যথাযথ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এটা চালু হলে কোন শঙ্কা থাকবে বলে আমি মনে করি না। তিনি আরও বলেন, আগামী এপ্রিল থেকে এ সিস্টেমের আওতায় মোবাইল ফোন ও আইপ্যাডের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা লেনদেন করতে পারবেন। এপ্রিলের মধ্যে এ সিস্টেমের সঙ্গে মোবাইল ফোন ও আইপ্যাডে লেনদেন উপযোগী সফটওয়্যার সংযোজন করা হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেনÑ বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেন, ডিএসইর চেয়ারম্যান বিচারপতি সিদ্দিকুর রহমান মিয়া, ডিএসইর এমডি ড. স্বপন কুমার বালা, নাসডাকের এমডি রবার্ট ফ্রিজ, ফ্লেক্সট্রেড-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেন মাইকেল বাঙ্কো প্রমুখ।