১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

জীববৈচিত্র্য রক্ষায় সুন্দরবনের ভেতরে নৌচলাচল বন্ধের দাবি


স্টাফ রিপোর্টার ॥ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য রক্ষায় এর অভ্যন্তরে সব ধরনের বাণিজ্যিক নৌযান চলাচল বন্ধের দাবি জানিয়েছেন পরিবেশবাদীরা। একই সঙ্গে সুন্দরবনের ভেতর দিয়ে নৌ চলাচলের সুযোগ দেয়ায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। বুধবার ১০টি পরিবেশবাদী সংগঠনের এক যৌথ বিবৃতিতে এই দাবি জানানো হয়। মঙ্গলবার ভোরে বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের শ্যালা নদীতে তেলবাহী জাহাজ ‘ওটি সাউদান স্টার-৭’ দুর্ঘটনায় সেখানে পরিবেশ মারাত্মক পরিবেশ বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, মংলা-ঘষিয়াখালী নৌপথে নাব্য সংকট সৃষ্টির পর খননের মাধ্যমে সেটিকে সচল না করে বিআইডব্লিউটিএ বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত এই একক ম্যানগ্রোভ ফরেস্টের ভেতর দিয়ে নৌযান চলাচলের অনুমতি দেয়। ২০১১ সালের নবেম্বরে প্রথম সুন্দরবনের ভেতরে নৌপথ চালু হয়। বিবৃতিদাতারা হলেন- নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির উপদেষ্টা পংকজ ভট্টাচার্য ও মনজুরুল আহসান খান, আহ্বায়ক আশীষ কুমার দে, জল পরিবেশ ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ম. ইনামুল হক, গ্রিন ক্লাব অব বাংলাদেশের সভাপতি নুরুর রহমান সেলিম, নিরাপদ নৌপথ বাস্তবায়ন আন্দোলনের সদস্যসচিব আমিনুর রসুল বাবুল, পিসের মহাসচিব ইফমা হুসেইন, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিহির বিশ্বাস, সিটিজেনস রাইটস মুভমেন্টের মহাসচিব তুসার রেহমান, মিডিয়া ফোরাম ফর হিউম্যান রাইটস এ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম সবুজ, আরিফুর রহমান জসি সিকদার।