১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

আরও দুই-তিন বছর খেলতে চান শেবাগ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুই বছর হতে চলল ভারতের জার্সি গায়ে সর্বশেষ খেলতে দেখা গেছে আক্রমণাত্মক ওপেনার বীরেন্দর শেবাগকে। গত বছর জানুয়ারিতে তিনি সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আর সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন গত বছর মার্চে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। ৩৬ বছর বয়সী এ মারদাঙ্গা ওপেনার আগামী বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত ৩০ সদস্যের প্রাথমিক দলেও ঠাঁই পাননি। তাই অনেকে মনে করছেন অচিরেই ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন শেবাগ। কিন্তু এ ওপেনার নিজেই দাবি করেছেন এখনও ক্রিকেট খুব উপভোগ করছেন তিনি এবং আরও অন্তত ২/৩ বছর খেলা চালিয়ে যেতে চান। তারপর অবসর নেয়ার চিন্তাভাবনা করবেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার কোন সুযোগ না পেলেও তাঁর কোন আক্ষেপ থাকবে না বলে জানান শেবাগ।

গত বছর মার্চে হায়দরাবাদে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের পর দল থেকে ছিটকে পড়েছিলেন শেবাগ। এরপর আর তাঁকে দলেই ডাকেননি নির্বাচকরা। কারণ দল থেকে ছিটকে পড়ার পর প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটেও ফেরার মতো তেমন কোন নৈপুণ্য দেখাতে পারেননি শেবাগ। ১২টি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলে তিনি মাত্র ২৫ গড়ে করতে পেরেছেন ৪২৫ রান। আর ওয়ানডে দল থেকে ছিটকে পড়ার পর ১১ লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে ২০.৭২ গড়ে করেছেন ২২৮ রান। তবু আশায় ছিলেন বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ঠাঁই করে নেয়ার। কিন্তু সে সুযোগ তাঁকে দেয়া হলো না। এ বিষয়ে শেবাগ বলেন, ‘এতে কার ক্ষতি হচ্ছে?’ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার আশা প্রায় শেষ হয়েই গেছে। তবে সে জন্য তেমন আক্ষেপ নেই তাঁর। এ বিষয়ে শেবাগ বলেন, ‘একজন ক্রিকেটার হিসেবে সবারই স্বপ্ন থাকে দেশের হয়ে খেলার। যখন আমি ক্রিকেটকে অনেক গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি তখন থেকেই চেয়েছি ভারতের হয়ে খেলব। যখন স্বপ্নটা অর্জিত হলো তখন ভেবেছি পরবর্তীতে আমি কি করব? সে সময় আমার স্বদেশী এক ক্রিকেটার বলেছিলেনÑ ভারতের হয়ে খেলতে পারাটা সহজ, কিন্তু ১০/১৫ বছর ধরে খেলা খুব কঠিন। তখন থেকেই আমি আমার স্বপ্নটা পরিবর্তন করেছি এবং লক্ষ্য নির্ধারণ করেছি ১০০ টেস্ট খেলার। সেটাও করে ফেলেছি। এখন আর কিছুই অর্জন করার নেই। সুতরাং আমি এখন সবকিছু শুধু উপভোগই করছি। তাছাড়া আমি যে ধরনেই নৈপুণ্য দেখিয়েছি সেটা আর করতে পারছি না। তবে আমি আমার খেলার ধরন পরিবর্তন করিনি এবং করবও না। কাজেই আরও দুই-তিন বছর খেলা চালিয়ে যাব।’ শেবাগ মনে করছেন তাঁর আর নতুন করে কিছু পাওয়ার নেই। যা পেয়েছেন তাতেই খুশি তিনি। এ বিষয়ে শেবাগ বলেন, ‘সবারই তাঁর জীবন নিয়ে সুখি থাকা উচিত। ক্রিকেটাররা তাঁদের মাইলফলক নিয়ে চিন্তিত থাকেন, চিন্তা করেন তাঁদের অবশ্যই ৫ থেকে ১০ হাজার রান করতে হবে। কিন্তু আমি এত অস্থির নই। আমি ১০০ টেস্ট খেলে ফেলেছি এবং এখনও খেলা চালিয়ে যাচ্ছি আর এটাই আমি চেয়েছিলাম।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: