২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ক্যারোলিনার নিষেধাজ্ঞা দাবি!


ক্যারোলিনার নিষেধাজ্ঞা দাবি!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবার সোচিতে অনুষ্ঠিত শীতকালীন অলিম্পিকের ফিগার স্কেটিংয়ে স্বর্ণ জিতেছেন ইতালিয়ান তারকা ক্যারোলিনা কস্টনার। ইতালিয়ান অলিম্পিক কমিটির এন্টি ডোপিং (সিওএনআই) বিভাগের সরকারী আইনজীবী দাবি করেছেন কস্টনারকে চার বছর তিন মাসের জন্য নিষেধাজ্ঞা আরোপের। ২০১২ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন কস্টনারকে প্রাথমিকভাবে অভিযুক্ত করা হয়েছিল ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও অলিম্পিক রেস ওয়াকার স্বর্ণপদকজয়ী এ্যালেক্স শোয়াজারকে ডোপিং আইন ভাঙ্গার পর সমর্থন দেয়ার কারণে। পরে জিজ্ঞাসাবাদেও সেভাবে সহযোগিতা করেননি ক্যারোলিনা।

২৭ বছর বয়সী কস্টনার পাঁচবারের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন। সোচিতে অলিম্পিক ব্রোঞ্জ জয়ের পর এ বছর তিনি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপসে অংশ নিচ্ছেন না। ২০০৮ সালে শোয়াজার অলিম্পিক স্বর্ণ জয় করেছিলেন। পরে ২০১২ অলিম্পিকে তিনি অংশ নিতে পারেনি ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার কারণে। তাঁর রক্তে উদ্দীপক পদার্থ ইপিও ধরা পড়েছিল। পরে এ্যাথলেটিক্স ছাড়ার পর তাঁকে সাড়ে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয় ২০১৩ সালে। সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানা গেছে আরও চার বছরের নিষেধাজ্ঞা আরোপ হতে পারে তাঁর ওপর। এবার অভিযোগ আন্তর্জাতিক ডোপিং আইন লঙ্ঘন। আর এসব ক্ষেত্রে শোয়জারের পক্ষ নিয়েই কথা বলেছেন কস্টনার। সে জন্যই এখন তাঁকেও সাজা দেয়ার দাবি করেছে সরকারী আইনজীবী। এ বিষয়ে সিওএনআই থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘দ্বিতীয় পর্যায়ের শুনানিতে জাতীয় এন্টি ডোপিং ট্রাইব্যুনাল ক্যারোলিনা কস্টনারের বিষয়টি বিবেচনা করে তাঁকে চার বছর তিন মাসের জন্য নিষেধাজ্ঞা প্রদানের দাবি করেছে।’ প্রসিকিউটর টামারো মায়েলোর অধীনে শোয়াজারের ডোপিং আইন লঙ্ঘনের বিষয়টি নিয়ে জোর তদন্ত পরিচালিত হচ্ছে এমনকি তাঁর সাবেক কোচও জিজ্ঞসাবাদের মুখে রয়েছেন। শোয়াজারের কোচ মাইকেল দিদোনি ১৯৯৫ সালে গোথেনবার্গে ২০ কিলোমিটারে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। গত মাসে তাঁকে সিওএনআই থেকে তলব করা হলেও সেটার কোন প্রত্যুত্তর করেননি দিদোনি। তাঁকে শোয়াজারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তথ্য প্রদানের আহ্বান জানানো হয়েছিল। কিন্তু তিনি না আসায় এখন তাঁর পেছনেও লেগেছে সিওএনআই। তাঁকেও এবার শাস্তির সম্মুখীন হতে পারে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: