২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভারতে ছানি কাটাতে গিয়ে দৃষ্টি হারালেন ৬০ জন


ভারতের পাঞ্জাবে বিনামূল্যের চক্ষু শিবিরে চিকিৎসা নেয়ার পর ৬০ রোগী সম্পূর্ণভাবে দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন। ৫ থেকে ১৬ নবেম্বরের মধ্যে তাঁরা বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা গুরু নানক চ্যারিটেবল ট্রাস্ট পারিচালিত চক্ষু শিবিরে চিকিৎসা নিয়েছিলেন। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকার।

পাঞ্জাব প্রদেশের অমৃতসর জেলার গাগো মাহাল গ্রামে চক্ষু শিবিরে চোখের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আসা ৬২ জন রোগীর ছানি অপারেশন করেছিলেন চিকিৎসকরা। পাশের গুরুদাসপুর থেকে আসা কিছু রোগীও দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন বলে শোনা গেলেও স্থানীয় প্রশাসন এখনও বিষয়টি নিশ্চিত করেনি। জেলা প্রশাসক অভিনব ত্রিখা বলেন, আনুষ্ঠানিক অভিযোগ এখনও তিনি পাননি। ৬০ জন রোগীর দৃষ্টি হারানোর খবর নিশ্চিত করে অমৃতসর জেলার সিভিল সার্জন ড. রাজিভ ভাল্লা বলেন, চিকিৎসা নেয়া গ্রামবাসীদের ৬০ জন সম্পূর্ণভাবে দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন। তাঁদের এখন সরকারী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগীরা অমৃতসরের জেলা প্রশাসক রবি ভগতের কাছে অভিযোগ নিয়ে আসার পরই বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের বিষয়ে তদন্ত করতে এবং ওই বেসরকারী সংস্থাটির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। দেশটিতে নবেম্বরে বন্ধ্যাকরণের চিকিৎসা নেয়ার কয়েকদিনের মধ্যে ১৩ জন নারীর মৃত্যু হওয়ার পর এবার দৃষ্টিশক্তি হারানোর খবর পাওয়া গেল। ছত্তিশগড় রাজ্যের বিলাশপুরে বন্ধ্যাকরণের চিকিৎসা নিয়েছিলেন ৩২ বছরের কম বয়সী ৮৩ জন নারী। পরবর্তী সময় তাঁদের কয়েকজনের মৃত্যু হওয়ার ওই ঘটনা বিশ্বজুড়ে আলোচিত হয়েছিল।