১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সৌদি নারীকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান এইচআরডব্লিউর


গাড়ি চালানোর অভিযোগে সংযুক্ত আরব আমিরাত সীমান্ত থেকে আটক সৌদি নারী ও তার সহযোগীকে দ্রুত মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে নিউইয়র্কভিত্তিক-মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। খবর ওয়েবসাইটের।

সোমবার বিকেলে আটকের পর লুজাইন হাথলুল নামের ওই নারী তার টুইটার বার্তায় লিখেছিলেন, ‘আমি ২৪ ঘণ্টা ধরে সৌদি সীমান্তে আটকে আছি। পুলিশ আমার পাসপোর্ট দিচ্ছে না এবং আমাকে যেতেও দিচ্ছে না।’ এ সময় সংযুক্ত আরব আমিরাত-ভিত্তিক সৌদি নারী সাংবাদিক মায়শা আলমোদি ওই নারীর পক্ষে কথা বলতে গেলে তাকেও আটক করা হয়। এই দুই নারী এখনও সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশে পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা বিষয়ক পরিচালক সারাহ্ লিয়াহ্ হোয়াইটসন বলেছেন, সৌদি সরকার বছরের পর বছর ধরে নারীর ওপর আরোপিত অবাস্তব নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার মিথ্যা আশ্বাস দিয়েছে; এখনও গাড়ি চালানোর দায়ে নারীকে গ্রেফতারের ধারা অব্যাহত রেখেছে দেশটি।

দেশভাগের পর প্রথম

ফুড এ্যান্ড আর্টস ফেস্টিভ্যালে অংশ নিতে দক্ষিণ কোরিয়া যাচ্ছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের ছোট বোন কিম ইয়ো জং। আগামী বছরের মার্চ মাসে এই উৎসবটির আয়োজন করা হয়েছে। আর কিম ইয়োই হচ্ছেন দেশটির শাসক পরিবারের প্রথম সদস্য যিনি দক্ষিণ কোরিয়া যাচ্ছেন। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ব্যবসায়ী গোষ্ঠী যৌথ এই ফেস্টিভ্যালে আয়োজনের পরিকল্পনা করেছে। এই গোষ্ঠীর সঙ্গে পিয়ং ইয়ংয়ের সম্পর্ক রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি সংবাদপত্র কোরিয়া ইকোনমিক ডেইলি বৃহস্পতিবার এই সংবাদ প্রকাশ করেছে। সংবাদপত্রটি বলেছে, এই উৎসবে অংশগ্রহণকারীদের যে তালিকা উত্তর কোরিয়া ওই গোষ্ঠীর কাছে পাঠিয়েছে তাতে কিম ইয়োর নাম রয়েছে। গত সপ্তাহেই কিম ইয়োকে দেশটির ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগ দেয়া হয়। দক্ষিণ কোরিয়ার একত্রীকরণ মন্ত্রণালয় তাৎক্ষণিকভাবে এ অনুষ্ঠানের বিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি। যদি এমন হয় তাহলে দেশ ভাগের ছয় দশকের বেশি সময় পরে কিম পরিবারের সদস্য হিসেবে কিম ইয়োর দক্ষিণ কোরিয়া সফরকেই প্রথম হিসেবে গণ্য করা হবে। ইয়াহু নিউজ।