১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

প্রতিশ্রুতি পূরণে প্রকল্প সংশোধন হচ্ছে


হামিদ-উজ-জামান মামুন ॥ জনগণকে নির্বাচনের আগে দেয়া মন্ত্রী ও এমপিদের প্রতিশ্রুতি পূরণে প্রকল্প সংশোধন করা হচ্ছে। ফলে বরাদ্দ বাড়ছে ৩৩৪ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। গ্রামীণ রাস্তায় ছোট ছোট সেতু কালভার্ট নির্মাণ (তৃতীয় পর্যায়) প্রকল্পটি দ্বিতীয়বারের মতো সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে প্রকল্প সংশোধনের অন্যান্য কারণের সঙ্গে বলা হয়েছে, অনুমোদিত সংশোধিত ডিপিপিতে (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব) সেতু বা কালভার্ট নির্মাণের যে সংস্থান রাখা হয়েছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। জনপ্রতিনিধিদের (মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য) অতিরিক্ত চাহিদার প্রেক্ষিতে ডিপিপির দ্বিতীয় সংশোধন করা হচ্ছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, মূল অনুমোদিত প্রকল্পটির ব্যয় ছিল ৬৯৫ কোটি টাকা। পরবর্তীতে প্রথম সংশোধনীর মাধ্যমে ব্যয় বাড়িয়ে করা হয়েছিল ৭৫০ কোটি ৫০ লাখ টাকা। বর্তমানে ৩৩৪ কোটি ৫৯ লাখ টাকা ব্যয় বাড়িয়ে মোট ১ হাজার ৮৫ কোটি ৯ লাখ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে প্রকল্পটির ব্যয় বাড়ছে ৪৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ। ২০১৬ সালের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের কাজ শেষ করবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

প্রকল্পের আওতায় দেশের সমতল এলাকার ৬১টি জেলার ৪৬১টি উপজেলায় মোট ৪৬ হাজার ২৯৫ মিটার চার হাজার ৮৮৩টি সেতু/ কালভার্ট নির্মাণ করা হবে।

প্রকল্পটি সংশোধনীর কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, অনুমোদিত প্রথম সংশোধনীতে তিন হাজার ৫১৫টি সেতু/কালভার্ট নির্মাণের সংস্থান রয়েছে। বর্তমানে এক হাজার ৩৬৮টি সেতু/কালভার্ট নির্মাণের সংস্থান বৃদ্ধি করে মোট চার হাজার ৮৮৩টি সেতু/কালভার্ট নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে। অনুমোদিত সংশোধিত ডিপিপিতে সেতু বা কালভার্ট নির্মাণের যে সংস্থান রাখা হয়েছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। জনপ্রতিনিধিদের (মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য) অতিরিক্ত চাহিদার প্রেক্ষিতে ডিপিপির (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব) দ্বিতীয় সংশোধন করা হয়েছে। এছাড়া কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচী ও ইমপ্লয়মেন্ট ফর দ্য পুওরেস্ট কর্মসূচীর আওতায় নির্মিত মাটির রাস্তায় অতিরিক্ত সেতু/কালভার্ট নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে।