১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শ্রমিকদের ৫ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদানের নির্দেশনা


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ প্রতিষ্ঠানের মোট লভ্যাংশের ৫ শতাংশ শ্রমিকের মাঝে বণ্টন না করলে প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স নবায়ন করা হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে শ্রম মন্ত্রণালয়। এ মন্ত্রণালয় থেকে সম্প্রতি জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে একথা বলা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনটি শ্রম আইন-২০০৬-এর আওতাভুক্ত জারি করা হয়েছে এবং এর কপি সংশ্লিষ্ট পরিদর্শকের কাছে পাঠানো হয়েছে।

শ্রম আইন পাস হওয়ার পর থেকেই প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশের যে অংশ শ্রমিকদের দেয়ার কথা তা বাস্তবায়নে নানা পদক্ষেপ নিয়ে তেমন সুফল না পাওয়ায় কর্তৃপক্ষ কঠোর হতে বাধ্য হয়েছে। এ জন্য শ্রম মন্ত্রণালয়ের কলকারখানা পরিদর্শ করা মাঠ পর্যায়ে তাদের কার্যক্রমও শুরু করে দিয়েছে।

শ্রম আইন-২০০৬-এর ২৩২ ধারা অনুযায়ী, কোনো প্রতিষ্ঠানের পরিশোধিত মূলধন যদি এক কোটি টাকা ও স্থায়ী সম্পদ ২ কোটি টাকা হয় তাহলে তাদের ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য হবে। তবে যেসব প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণ রফতানির লক্ষ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না। ফলে দেশের রফতানিমুখী প্রায় গার্মেন্টস শিল্প এই নির্দেশনার আওতায় আসছে না।

প্রতিষ্ঠানের ৫ শতাংশ মুনাফা শ্রমিকদের কল্যাণে বণ্টন করতে হবে। ৫ শতাংশ মুনাফার অঙ্কের ৮০ শতাংশ শ্রমিকদের নির্দিষ্ট সময় শেষে দিতে হবে। আর ১০ শতাংশ শ্রমিকদের কল্যাণ তহবিলে ও বাকি ১০ শতাংশ সরকারের শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে দেয়ার বিধান রয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র আরও জানায়, এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারির প্রক্রিয়া গত দুইবছর ধরে চলমান থাকলেও তা মালিকপক্ষের চাপে এতোদিন আনুষ্ঠানিকভাবে দেয়া সম্ভব হয়নি। তবে শেষ পর্যন্ত সরকারের উচ্চ পর্যায়ের চাপে এবং জিএসপি পুনরুদ্ধারের ‘শ্রম আইন বাস্তবায়ন হচ্ছে না’ এমন মন্তব্য যাতে কেউ না করতে পারে সে জন্যই এ পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে শ্রম আইন বিশেষজ্ঞ এ্যাডভোকেট জাফরুল হাসান শরীফ বলেন, শ্রম আইন বাস্তবায়নে সরকারের এ ধরনের পদক্ষেপ রাখা খুব জরুরী ছিল।