১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

চলে গেলেন কিংবদন্তী কত্থক নৃত্যশিল্পী সিতারা দেবী


চলে গেলেন কিংবদন্তী কত্থক নৃত্যশিল্পী সিতারা দেবী

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ ভারতীয় উপমহাদেশের কিংবদন্তী কত্থক নৃত্যশিল্পী সিতারা দেবী আর নেই। মঙ্গলবার সকালে মুম্বাইয়ের যশলোক হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। সিতারা দেবীর জামাতা রাজেশ মিশরা গণমাধ্যমকে বলেন, বেশ কিছু দিন ধরেই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন এই নৃত্যশিল্পী। সোমবার সকাল থেকে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ভেন্টিলেটরে রাখা হয় তাকে। মঙ্গলবার তিনি মারা যান। রাজেশ মিশরা আরও বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে সিতারা দেবীর শরীর ভাল যাচ্ছিল না। তাঁর কিডনীর সমস্যা দেখা দিয়েছিল। এছাড়া আরও কয়েকটি জটিল ব্যাধিতে ভূগছিলেন তিনি। এরই ধারাবাহিকতায় ৫ সপ্তাহ আগে তাঁকে মুম্বাইয়ের কামবালা হিল হাসপাতাল এবং হার্ট ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছিল। পরে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে যশলোক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। এদিকে সিতারা দেবীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এক শোক বাণিতে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ভারতের নৃত্যশিল্পের ইতিহাসে বিশেষ করে কত্থক নৃত্যে সিতারা দেবীর অবদান স্মরনিয় হয়ে থাকবে। প্রসঙ্গত, সিতারা দেবী ১৯২০ সালে কলকাতায় ব্রাহ্মণ কথাকার সুখদেব মহারাজের পরিবারে জন্ম গ্রহণ করে । জন্মের সময় তাঁর নাম ছিল ধন্নোলক্ষ্মী। মুম্বাইতে তার তিন ঘণ্টা টানা নাচের অনুষ্ঠান দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। প্রথমে মুঘল-ই আজমখ্যাত পরিচালক কে আসিফ ও পরে প্রতাপ বারোটকে বিয়ে করলেও কোনো বিয়েই সুখের হয়নি তাঁর। এ কারণেই নিজেকে আরও বেশি ডুবিয়ে রাখেন নাচে। বলিউডে কত্থক নাচ জনপ্রিয় করে তুলেছিলেন সিতারা দেবী। উষা হরণ, নাগিনা, রোটি, ওয়তন, অঞ্জলি চলচ্চিত্রে তাঁর নাচের মাধ্যমে মুগ্ধ করেছেন দর্শকদের। ‘মাদার ইন্ডিয়া’ চলচ্চিত্রে হোলির গানে তাঁর নাচ ছিল বলিউডে ক্যারিয়ারের শেষ নাচ। এরপর বলিউড থেকে সরে গিয়ে ধ্রুপদি নৃত্যশিল্পী হিসেবেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন তিনি। সিতারা দেবী সঙ্গীন নাটক একাডেমি, পদ্মশ্রী, কালিদাস সম্মানসহ আরও অনেক সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।