১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ভারতের কাছে কাশ্মীর ইস্যু তুলুন ॥ ওবামাকে নওয়াজ


পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আগামী ভারত সফরকালে ভারতীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কাশ্মীর ইস্যুটি উত্থাপন করতে ওবামার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। শুক্রবার ওবামা নওয়াজ শরীফকে টেলিফোন করলে তাঁকে এ অনুরোধ জানানো হয়। প্রেসিডেন্ট ওবামা ২০১৫ এর জানুয়ারিতে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হবেন বলে হোয়াইট হাউস প্রকাশ্যে নিশ্চিত করার কয়েক ঘণ্টা পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করে তাঁর আগামী ভারত সফরের কথা এবং ওয়াশিংটন ইসলামাবাদের সঙ্গে এর সম্পর্ককে গুরুত্ব দিয়ে থাকে বলে জানান। দুই নেতা দ্বিপক্ষীয় ও আঞ্চলিক পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা করেন। খবর পিটিআইয়ের।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দফতরের এক বিবৃতিতে দুই নেতার মধ্যকার আলোচনার বিষয়ে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় নেতৃবৃন্দের কাছে কাশ্মীর ইস্যুটি উত্থাপন করতে প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রতি আহ্বান জানান। কারণ এর আশু সমাধান এশিয়াতে স্থায়ী শান্তি, স্থিতিশীলতা ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বয়ে আনবে। এতে আরও বলা হয়, ওবামা ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিতে জানুয়ারিতে তাঁর আসন্ন ভারত সফর সম্পর্কে শরীফকে অবহিত করেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট যত শীঘ্র পাকিস্তানের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তত শীঘ্র কোন এক তারিখে দেশটি সফর করবেন বলে প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বাস দেন। ওবামা ভারতের আগামী প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন বলে ভারতীয় মিডিয়ার খবরেও জানানো হয়।

আফগান লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকা সম্প্রসারিত হচ্ছে

আফগানিস্তানে ২০১৫ সালে সামরিক বাহিনীকে মূল পরিকল্পনার চেয়ে আরও সম্প্রসারিত এক মিশন চালানোর কর্তৃত্ব দিয়ে সাম্প্রতিক এক গোপন নির্দেশে স্বাক্ষর করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এ উদ্যোগের মাধ্যমে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে লড়াইয়ে প্রত্যক্ষ ভূমিকা রাখতে যুক্তরাষ্ট্র অন্তত আরও এক বছর নিশ্চিত করবে মার্কিন সৈন্যদের অবস্থান। প্রশাসন, সেনাবাহিনী ও কংগ্রেসের কয়েকজন কর্মকর্তা সিদ্ধান্তটি সম্পর্কে অবগত হয়ে বলেছেন, ওবামার এ নির্দেশে আমেরিকান সৈন্য বা আফগান সরকারের প্রতি হুমকি প্রদানকারী তালেবান ও অন্যান্য জঙ্গী গ্রুপের বিরুদ্ধে মিশন পরিচালনার অনুমোদন দেয়া হচ্ছে মার্কিন বাহিনীকে।

প্রেসিডেন্ট এ বছরের শুরুতে এ সংক্রান্ত যে পরিকল্পনাটি প্রকাশ করেছিলেন তার চেয়ে ব্যাপক এ মিশন। এ পরিকল্পনায় লড়াইয়ে আফগান সৈন্যদের প্রতি সহায়তায় মার্কিন জেট ও ড্রোন ব্যবহারেরও অনুমতি দেয়া হয়েছে। -নিউইয়র্ক টাইমস