১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দারুণ জয়ে এগিয়ে গেল অসিরা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নিয়মিত অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্কের ইনজুরি ঘিরে বেশ ঝামেলায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু মাঠে তার প্রভাব কোথায়? ভারপ্রাপ্ত জর্জ বেইলির নেতৃত্বে দারুণ খেলল স্বাগতিকরা। ক্যানবেরায় তৃতীয় ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৭৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে অসিরা এগিয়ে গেল ২-১এ। টস জয় থেকে শুরু করে ছবির মতো সুন্দর মানুকা ওভালের পুরো গল্পটাই এগিয়েছে বেইলিদের তৈরি চিত্রনাট্য মেনে! ওপেনার এ্যারন ফিঞ্চের ১০৯ ও ম্যাচের নায়ক স্টিভেন স্মিথের ৫৫ বলে অপারাজিত ৭৩ রানের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩২৯ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে অস্ট্রেলিয়া। জবাবে হাশিম আমলার সেঞ্চুরি সত্ত্বেও ৪৪.৩ ওভারে ২৫৬ রানে অলআউট হয় অতিথি প্রোটিয়ারা। মেলবোর্নে চতুর্থ ওয়ানডে শুক্রবার।

উদ্ভাসিত ব্যাটিংয়ে ৩২৯ রান করার পরই মূলত মানসিকভাবে এগিয়ে যায় অসিরা। বড় দলগুলোর লড়াইয়ে এ রান অতিক্রম মোটেই সহজ নয়। তাছাড়া ঘরের মাটিতে নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসে এ পর্যন্ত ২৬ বার ৩০০ বা তার বেশি রান করে কখনই হারেনি অস্ট্রেলিয়া। স্বাগতিকদের দুর্দান্ত শুরু এনে দেন দুই ওপেনার। ২০ ওভারে ১১৮ রান যোগ করেন ফিঞ্চ-ডেভিড ওয়ার্নার। ৫০ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৫৩ রান করে আউট হন ওয়ার্নার। ৪৮ ম্যাচে হার্ডহিটার অসি তারকার দশম হাফসেঞ্চুরি এটি। এরপর ফিঞ্চের সঙ্গে যোগ দেন ওয়াটসন। ৩৮ বলে ৪০ রান করে ফেরেন তিনি। ওয়াটসন আউট হলেও রানের গতিতে ঝড় অব্যাহত রাখেন স্মিথ। তৃতীয় উইকেটে ফিঞ্চ-স্মিথ ৮ ওভারে ৫৩ রান এনে দেন। ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি পূর্ণ করে ১০৯ রানে অকেশনাল এবি ডি ভিলিয়ার্সের মিডিয়াম পেসে বোল্ড হন ফিঞ্চ! ১২৭ বলের ইনিংসে ছিল ৯ চার ও ৩ ছক্কার মার।

এরপরও অস্ট্রেলিয়াকে পাহাড় চূড়ায় নিয়ে যাওয়ার রূপকার স্মিথ। ৫৫ বলে ৮ চারের সাহায্যে ৭৩ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন ম্যাচের নায়ক। টপঅর্ডারের চার ব্যাটসম্যানের তিনজই তুলে নেন হাফসেঞ্চুরি ও সেঞ্চুরি। শেষদিকে মিচেল মার্শ ১৩ বলে করেন ২২ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে মরনে মরকেল নেন ২ উইকেট।

জবাবে প্রোটিয়াদের শুরুটাও ছিল আশাজাগানিয়া। ১৮.২ ওভারে ১০৮ রান এনে দেন দুই ওপেনার হাশিম আমলা ও কুইন্টন ডি’কক। ৪৭ রান করে আউট হন তরুণ ডি’কক। এরপর দলীয় ১৪৮ রানের মধ্যে আরও তিন উইকেট হারালে চাপে পড়ে সফরকারীরা। আমলা ও অধিনায়ক ডিভিলিয়ার্স চেষ্টা করেছেন, কিন্তু বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা সে চাপ আর সামলে উঠতে পারেনি তারা। ১০১ নম্বর ম্যাচে ক্যারিয়ারের ১৭ সেঞ্চুরি তুলে নেয়া আমলা আউট হন ১০২ রান করে। ৩৪ বলে ৫২ রানে ফেরেন ডিভিলিয়ার্স। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে পেসার মিচেল স্টার্ক ৪ ও জোস হ্যাজলউড নেন ৩টি করে উইকেট।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: