মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৮ আগস্ট ২০১৭, ৩ ভাদ্র ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

প্রতিটি দল থেকে কমপক্ষে ৩৩ শতাংশ আসনে নারীর মনোনয়ন দাবি

প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৪
  • মহিলা পরিষদের মতবিনিময় সভা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের বার্ষিক জরিপের তথ্য অনুযায়ী লিঙ্গ সমতায় বাংলাদেশের অবস্থান ১৪২টি দেশের মধ্যে ৬৮তম। এ প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ও শিক্ষা খাতে নারীর অংশগ্রহণ, সুযোগ সুবিধা ভোগ, অর্জন, স্বাস্থ্য ও আয়ুর মতো প্রতিটি সূচকে নারীর গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি রয়েছে। নারীর এই অগ্রসরমান ভূমিকাকে আরও বেগবান করার জন্য নির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধিদের অবস্থান আরও নিরাপদ ও স্থায়ী করতে হবে। রাষ্ট্র পরিচালনার মূল স্রোতধারায় নারীসমাজের ব্যাপক অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হলে রাজনৈতিক দলগুলোকে সকল কর্মপ্রক্রিয়ায় নারীকে সম্পৃক্ত করতে হবে। সিদ্ধান্তগ্রহণ প্রক্রিয়ায় নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। এ তথ্য তুলে ধরা হয় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ আয়োজিত মতবিনিময় সভায়। এই সভা থেকে সরকারের প্রতি ৭টি সুপারিশ এবং রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি ৯টি সুপারিশ তুলে ধরা হয়। জনগণ ও নারী সমাজের প্রত্যাশা ও আকাক্সক্ষা অনুযায়ী সংসদীয় গণতন্ত্রের কাক্সিক্ষত রূপ ও চিত্র পেতে হলে জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনে সরাসরি নির্বাচন প্রক্রিয়া চালু এবং আসনসংখ্যা এক-তৃতীয়াংশ বৃদ্ধি এবং নির্বাচনে প্রতিটি রাজনৈতিক দল থেকে কমপক্ষে ৩৩% নারীকে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। এ বিষয়ে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম এবং অধ্যাপক আবদুল মান্নান। রাজধানীর সিরডাপে এ মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন আয়েশা খানম।

মহিলা পরিষদের দাবির সাথে একাত্ম হয়েই দৈনিক ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেন, মহিলা পরিষদ কেন জাতীয় সংসদে ৫০% নারীকে মনোনয়নের দাবি করছে না? তিনি বলেন, প্রত্যেকটি আসনে দুইজন করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে সমস্যা নেই। এ দাবি অযৌক্তিকও নয়, অবাস্তবও নয়। মাহফুজ আনাম উল্লেখ করেন, এক্ষেত্রে সমস্যা একটাই- সেটা হচ্ছে আমাদের চিন্তার দীনতা। একই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, বর্তমানে সংরক্ষিত আসনের নারী সাংসদরা সংসদে কোন ভূমিকাই রাখেন না। নারী সাংসদদের দায়িত্বহীনতা আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে তাঁদের লজ্জিত করা প্রয়োজন। নারী সাংসদদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে দায়িত্ব সচেতন করার জন্য তিনি মহিলা পরিষদকে আহ্বান জানান। এ সময় তিনি বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের বিরোধিতাকারীদের নির্বাচনে বর্জন করা উচিত। নারীদের সচেতন এবং নারী সাংসদদের দায়িত্বশীল করার ক্ষেত্রে মহিলা পরিষদের ভূমিকার ব্যর্থতা তুলে ধরেন মাহফুজ আনাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, যুক্তরাজ্য, সুইডেনসহ বিশ্বের অনেক দেশের নারীদের ভোটাধিকারের জন্যই যেখানে শত শত বছর সংগ্রাম করে যেতে হয়েছে, সেই বিশ্ব প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের নারীরা এ দেশ স্বাধীন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটাধিকার অর্জন করেছে।

প্রকাশিত : ১৯ নভেম্বর ২০১৪

১৯/১১/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: