২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভৈরবে বিএনপি নেতাসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা


নিজস্ব সংবাদদাতা, ভৈরব, ২৮ অক্টোবর ॥ ভৈরব পৌরসভার কাউন্সিলর আরিফুল ইসলামসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা আমলে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ আমল গ্রহণকারী আদালত-২ এর বিচারক এসএম রাজিবুল হাসান ভৈরবের চাঞ্চল্যকর শিমু হত্যা মামলার শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। মামলার অন্য আসামিরা হলেন, আরিফের স্ত্রী লাইলি বেগম, শ্যালক ফোরকান ও তার স্ত্রী শাহানা বেগম, হনুফা বেগম, কালু মিয়া ও পারভেজ মিয়া।

জানা গেছে, ভৈরবে গৃহকর্মী শিমু আক্তার মৃত্যুর ঘটনায় নিহতের মা হাজেরা বেগম বাদী হয়ে পৌরসভার কাউন্সিলর বিএনপি নেতা আরিফুল ইসলামসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে ভৈরব থানায় মামলা দিতে গেলে পুলিশ হত্যা মামলা না নিয়ে অপমৃত্যু মামলা করে। এ ঘটনার পর শিমুর মা কিশোরগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেড আদালত ২ এ গত ৩ অক্টোবর হত্যা মামলা করেন। আদালত তার অভিযোগটি আমলে নিয়ে ১৯ অক্টেবরের মধ্যে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

উক্ত কার্যদিবসে আদালতে নথি না পৌঁছানোর কারণে আদালত ২৮ অক্টোবর শুনানির দিন ধার্য করেন।

জানা গেছে, নিহত শিমু আক্তার দীর্ঘদিন পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বিএনপি নেতা আরিফুল ইসলামের বাড়িতে গৃহকর্মী হিসাবে এক যুগ ধরে কাজ করেছে। গেল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পূর্বে আরিফের স্ত্রী লাইলি বেগম শিমুকে নিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে কুৎসা রটায়। ফলে আরিফ শিমুকে তার গৃহকর্মীর কাজ থেকে বাদ দিয়ে দেয়।